নাটোরের মাদ্রাসা মোড় এখন স্বাধীনতা চত্বর!

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১, ২০২০; সময়: ৫:২৩ অপরাহ্ণ |
নাটোরের মাদ্রাসা মোড় এখন স্বাধীনতা চত্বর!

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : শহরের মাদ্রাসা মোড় নাটোরের জিরো পয়েন্ট। সেই মাদ্রাসা মোড়ের নাম এখন স্বাধীনতা চত্বর। এখন থেকে এই মোড় পরিচিতি পাবে স্বাধীনতা চত্বর নামে। জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধি ও পৌরসভার সর্বসম্মতিক্রমে এই নামকরনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মাদ্রাসা মোড়কে স্বাধীনতা চত্বর নাম করনে ধন্যবাদ জ্ঞাপন সহ সন্তষ্ঠি প্রকাশ করেছেন মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যসহ বিশিষ্টজনেরা।

গত মঙ্গলবার জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ মাদ্রাসা মোড়ের নাম পরিবর্তন করে স্বাধীনতা চত্বর নাম করন করার বিষয়টি জানান।

মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ সৈয়দ মোর্তুজা আলী বাবলু মাদ্রাসা মোড়কে স্বাধীনতা চত্বর নামকরন করায় জেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এই নামকরনে তিনি সহ স্বাধীনতার স্বপক্ষের সকল মানুষ মহা খুশী এবং আনন্দিত। কেননা এই মাদ্রাসা মোড়ে রয়েছে স্বাধীনতার স্মৃতি সৌধ। দীর্ঘদিন ধরে এই স্বাধীনতা ও শহীদ স্মৃতি সৌধ চত্বরে স্বাধীনতা বিরোধীদের ছবি টানানো হতো। এ থেকে এবার হয়ত রেহায় মিলবে। তবে এই নামকরন যেন চিরস্থায়ী হয় সেদিকটা খেয়াল রেখে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি দাবী জানা তিনি।

বীর প্রতীক সোলায়মান আলী উল্লাস প্রকাশ করে বলেন,এই নামকরন করে স্বাধীনতার বীর সেনানীদের আবারও সম্মানীত করায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাচ্ছি। এই নাম করন যেন ভবিষ্যতে কেউ খুলে নিয়ে না যায় সেদিকে নজর রেখে পাকাপোক্ত বা পরিপক্ষভাবে কাজ করার দাবী করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোঃ শাহরিয়াজ বলেন, দীর্ঘদিন ধরে মাদ্রাসা মোড়ের নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব নিয়ে বিভিন্ন ফোরামে আলোচনা চলছিল। সম্প্রতি সরকারীভাবে আয়োজিত একটি আলোচনা অনুষ্ঠানে মাদ্রাসা মোড়ের নাম “স্বাধীনতা চত্বর ” হিসেবে নামকরনের প্রস্তাব করা হয়। এসময় অনুষ্ঠানে স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল,জেলা পরিষদ ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যা ও পৌর মেয়র এবং অন্যান্য জনপ্রতিনিধিসহ অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিশিষ্টজনরা “স্বাধীনতা চত্বর ” নামকরনের পক্ষে মতামত দেন। ওই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয় মাদ্রাসা মোড়কে “স্বাধীনতা চত্বর ” হিসেবে নামকরন করার। ওই অনুষ্ঠানের সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত মোতাবেক মাদ্রাসা মোড়ের নাম ‘স্বাধীনতা চত্বর’ রাখা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে