অর্থমন্ত্রীর বাসা থেকে অর্থ চুরি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২, ২০২০; সময়: ৫:৩৬ অপরাহ্ণ |
অর্থমন্ত্রীর বাসা থেকে অর্থ চুরি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটেছে। তার স্ত্রী কাশমিরী কামালের আলমারির ড্রয়ার ভেঙে নগদ অর্থ চুরি করে পালানোর অভিযোগে এক গৃহকর্মীর বিরুদ্ধে গুলশান থানায় একটি মামলা হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অভিযুক্ত গৃহকর্মী সালমা বেগমকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

মামলার বাদী লোটাস কামাল গ্রুপ অব কোম্পানির ম্যানেজার জাহাঙ্গীর হোসেন। মঙ্গলবার দায়ের করা ওই মামলার এজাহারের ভাষ্য অনুযায়ী, গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর কাশমিরী কামালের গুলশান ২ নম্বরের ১০৩ নম্বর রোডের ১১ নম্বর বাসায় কাজ নেন গৃহকর্মী সালমা বেগম (৪৫)। তিনি সর্বক্ষণ বাসায় থাকতেন। গত ১৩ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় কাশমিরী কামালের বাসার আলমারির ড্রয়ার ভেঙে নগদ ৭০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যান ওই গৃহকর্মী। পরে ওইদিন বেলা ১১টা নাগাদ গৃহকর্মী সালমা বেগমকে খুঁজে না পেয়ে তাকে ফোন করেন কাশমিরী কামাল। কিন্তু সালমা বেগমের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

পরে গত ১৫ ডিসেম্বর ওই গৃহকর্মীর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ হয় কাশমিরী কামালের। সে সময় চুরির কথা স্বীকার করে চুরি করা টাকা ফেরত দেয়া হবে বলে জানান সালমা বেগম। কিন্তু এরপর থেকে সালমা বেগম সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে আত্মগোপনে চলে যান।

মামলার বাদী লোটাস কামাল গ্রুপ অব কোম্পানির ম্যানেজার জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে ফোনে চার্জ নেই বলে জানান তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কাশমিরী কামালের গৃহকর্মী সালমা বেগমের বাবার নাম শাহাদৎ হোসেন। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুর থানা এলাকার আত্রাই গ্রামে। সালমা ২০১৯ সালের শুরুতে ঢাকায় আসেন। এরপর গুলশানের এক বাসায় কাজ নেন। সেখানে গত বছরের আগস্ট পর্যন্ত কাজ করেন তিনি। পরে কাশমিরী কামালের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে যোগদান করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার উপপরিদর্শক মো. খোরশেদ আলম বণিক বার্তাকে বলেন, গৃহকর্মী সালমা বেগমকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তার সেলফোনটি বন্ধ থাকায় তার অবস্থান শনাক্ত করতে কিছুটা বেগ পেতে হচ্ছে। তবে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যেই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে