মোদি কি পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত : মমতা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৪, ২০২০; সময়: ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ |
মোদি কি পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত : মমতা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বিরোধীদের উদ্দেশে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, আন্দোলন করতে হলে পাকিস্তানের কার্যকলাপের বিরুদ্ধে করুন। মোদির এ বক্তব্যের কড়া জবাব দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শুক্রবার শিলিগুড়িতে এক জনসভায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আপনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু আপনি কথায় কথায় পাকিস্তানের নাম জপেন কেন? আপনি পাকিস্তানকে মহিমান্বিত করেন কেন? আপনি কি পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত নাকি? খবর খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

মোদিকে উদ্দেশ্য করে মমতা আরও বলেন, হিন্দুস্থানের সঙ্গে পাকিস্তানের তুলনা হয় না। আমরা হিন্দুস্থানের কথা শুনতে চাই। পাকিস্তানকে আমরা চাই না।

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে আমরা স্বাধীনতার লড়াই করছি।

নাগরিকত্ব আইনের সমালোচনা করে তিনি বলেন, কেন্দ্র আর বিজেপি- এনআরসি, সিএএ এবং এনপিআর নিয়ে যা করছে, তা পুরোটাই চক্রান্ত। মানুষের নাগরিকত্ব কেড়ে নিয়ে মাথায় ছাদ সরানোর চেষ্টা হচ্ছে।

‘আমরা এর বিরুদ্ধে একজোট হয়ে লড়াই করব। এটা আমাদের আর একটি স্বাধীনতার লড়াই। আমাদের আজাদির লড়াই।’

মমতার আজাদির লড়াই কথা শুনে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা বলছেন, দ্বিতীয় স্বাধীনতার লড়াইয়ের কথা এর আগে বললেও মমতার মুখে ‘আজাদি’ শব্দটা নতুন।

লোকসভা ভোটে উত্তরবঙ্গে গেরুয়া ঝড়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল তৃণমূল। তবে আসামে এনআরসি হওয়ার পরে তার বিরুদ্ধে প্রচার শুরু করে তারা।

মমতা বলেন, কর্মসংস্থান থেকে অর্থনীতি— দেশের কী অবস্থাটা করেছে মোদি সরকার? আবার দেশের নাগরিকদের নতুন করে নাগরিকত্ব প্রমাণের কথা বলছে। আর দেশজুড়ে প্রকিবাদ শুরু হতেই এখন পাকিস্তানের দিকে দৃষ্টি ফেরানো কৌশল অবলম্বন করছে মোদি। আমরা কোন ভাবেই মোদির এসব কথায় কান দেব না।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, যারা রাষ্ট্রবিরোধী কাজে যুক্ত, তাদের ভোটার বানানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী তাদের স্বার্থে রাস্তায় নেমেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে