নলডাঙ্গায় কোটি টাকার মালামাল লুট

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২২, ২০২০; সময়: ৪:২৮ অপরাহ্ণ |
নলডাঙ্গায় কোটি টাকার মালামাল লুট

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : নাটোরের নলডাঙ্গায় নৈশ প্রহরিকে বেঁধে রেখে ট্রাক ভিড়িয়ে ৪টি দোকান থেকে প্রায় কোটি টাকার মালামাল রুট করে নিয়ে গেছে ডাকাত দল। মঙ্গলবার রাতে নলডাঙ্গা বাজারের ভিআইপি রোডে এই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা ডাকাতি শেষে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা সহ ওই চার দোকানের সিসিটিভির হার্ডডিক্স খুলে নিয়ে যায়। এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ ও ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা বিক্ষোভ প্রকাশ করে থানা চত্বরে অবস্থান নেয়। পরে পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত সনাক্ত করে আটকের প্রতিশ্রুতি দিলে ব্যবসায়ীরা থানা চত্বর থেকে সরে যান।

পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের দেয়া তথ্যে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে একদল ডাকাত একটি ট্রাক নিয়ে নলডাঙ্গা বাজারে হানা দেয়ে। এসময় ডাকাতদলের সদস্যরা বাজারের চার নৈশ প্রহরি কামরুল, আলতাব,ফজলু ও হাবুকে অস্ত্রের মুখে বেধে ফেলে। এসময় তাদের মুখে স্ক্রসটেপ সাঁটিয়ে দিয়ে ওই বাজারের ভিআইপি রোডের শহিদুল ইসলাম,মাজেদ,মোহম্মদ মজি ও রাশিদুল ইসলামের চারটি কাপড়ের দোকানে ডাকাতি করে। ডাকাতদল ওই চারটি কাপড়ের দোকানের ক্যাশ বাক্স ভেঙ্গে নগদ অর্থ, মুল্যবান শাড়ী ও তৈরি পোশাক সহ প্রায় কোটি টাকার মালামাল লুট করে ট্রাকে তুলে পালিয়ে যায়।বুধবার সকালে এলাকাবাসী সহ ব্যবসায়ীরা ডাকাতির বিষয়টা জানতে পেরে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে নলডাঙ্গা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ডাকাতির আলামত সংগ্রহ করে এবং ওই চার নৈশ প্রহরিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে য়ায়।

এদিকে খবর পেয়ে নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকরামুল ইসলাম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল আবুল হাসনাত সহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্মন করেন।

অপরদিকে নলডাঙ্গা থানার কয়েকশ গজ দুরের এই বাজারে ট্রাক ভিড়িয়ে ডাকাতির সংঘঠিত হওয়ায় প্রতিবাদ জানাতে ব্যবসায়ীরা বুধবার সকালে থানা চত্বরে অবস্থান নেয়। এসময় নলডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ন কবীর তাদের আশ্বস্ত করে ব্যবসায়ীদের শান্ত করেন।

ওসি হুমায়ুন কবীর বলেন, এঘটনায় ব্যাবসায়ীদের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জড়িতদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে। অন্যান্য দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে। তাদের ধরতে আশে পাশের থানাগুলোতে বার্তা পাঠানো হয়েছে। এছাড়া নৈশ প্রহরিদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে