গজনভি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালাল পাকিস্তান

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৩, ২০২০; সময়: ৭:৩৭ অপরাহ্ণ |
গজনভি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালাল পাকিস্তান

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য একটি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে পাকিস্তান। গজনভি নামে ওই স্থল ক্ষেপণাস্ত্রটির ২৯০ কিলোমিটার দূরত্বে আঘাত হানা যাবে বলে দেশটি জানিয়েছে।

বুধবার রাতে ক্ষেপণাস্ত্রটি দ্বিতীয়বারের মতো সফল উৎক্ষেপণ হয়েছে বলে পাকিস্তান সেনাবাহিনী জানিয়েছে। খবর ডন ও জিয়ো নিউজের।

পাকিস্তান আন্তঃবাহিনী জনসংযোগের (আইএসপিআর) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিয়মিত প্রশিক্ষণ মহড়ার অংশ হিসেবে ক্ষেপণাস্ত্রটি পরীক্ষা করা হয়েছে। এর উদ্দেশ্য হল সেনা কৌশলগত কমান্ড বাহিনীর অভিযানের প্রস্তুতি পরীক্ষা করা।

গজনভি পাকিস্তানের স্বল্পপাল্লার একটি ক্ষেপণাস্ত্র। পাকিস্তানের হাতে শাহিন ও গৌরি নামেও আরও দুটি একই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে।

প্রশিক্ষণের সময় কৌশলগত পরিকল্পনা বিভাগের মহাপরিচালক, সেনা কৌশলগত বাহিনীর কমান্ডার, জাতীয় প্রকৌশল ও বৈজ্ঞানিক কমিশনের চেয়ারম্যান, কৌশলগত পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র কর্মকর্তা, সেনা কৌশলগত বাহিনীর কমান্ড, বিজ্ঞানী ও প্রকৌশলীরা উপস্থিত ছিলেন।

মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে পাকিস্তানই বিশ্বের একমাত্র পারমাণবিক শক্তিধর দেশ। দেশটির সেনাবাহিনীর সদস্য সংখ্যা প্রায় সাত লাখ। দেশটিতে রিজার্ভ আর্মি আছে আরও পাঁচ লাখের বেশি।

এদিকে ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা বাড়ানোর বদলে ক্ষুদ্র পাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির ওপর গুরুত্ব দিয়েছে পাকিস্তান। এ জাতীয় ক্ষেপণাস্ত্র খুব নিচু দিয়ে উড়ে যায় বলে ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে ফাঁকি দিতে পারবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

গজনভি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালাল পাকিস্তান
ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য একটি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে পাকিস্তান। গজনভি নামে ওই স্থল ক্ষেপণাস্ত্রটির ২৯০ কিলোমিটার দূরত্বে আঘাত হানা যাবে বলে দেশটি জানিয়েছে।

বুধবার রাতে ক্ষেপণাস্ত্রটি দ্বিতীয়বারের মতো সফল উৎক্ষেপণ হয়েছে বলে পাকিস্তান সেনাবাহিনী জানিয়েছে। খবর ডন ও জিয়ো নিউজের।

পাকিস্তান আন্তঃবাহিনী জনসংযোগের (আইএসপিআর) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিয়মিত প্রশিক্ষণ মহড়ার অংশ হিসেবে ক্ষেপণাস্ত্রটি পরীক্ষা করা হয়েছে। এর উদ্দেশ্য হল সেনা কৌশলগত কমান্ড বাহিনীর অভিযানের প্রস্তুতি পরীক্ষা করা।

গজনভি পাকিস্তানের স্বল্পপাল্লার একটি ক্ষেপণাস্ত্র। পাকিস্তানের হাতে শাহিন ও গৌরি নামেও আরও দুটি একই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে।

প্রশিক্ষণের সময় কৌশলগত পরিকল্পনা বিভাগের মহাপরিচালক, সেনা কৌশলগত বাহিনীর কমান্ডার, জাতীয় প্রকৌশল ও বৈজ্ঞানিক কমিশনের চেয়ারম্যান, কৌশলগত পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র কর্মকর্তা, সেনা কৌশলগত বাহিনীর কমান্ড, বিজ্ঞানী ও প্রকৌশলীরা উপস্থিত ছিলেন।

মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে পাকিস্তানই বিশ্বের একমাত্র পারমাণবিক শক্তিধর দেশ। দেশটির সেনাবাহিনীর সদস্য সংখ্যা প্রায় সাত লাখ। দেশটিতে রিজার্ভ আর্মি আছে আরও পাঁচ লাখের বেশি।

এদিকে ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা বাড়ানোর বদলে ক্ষুদ্র পাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির ওপর গুরুত্ব দিয়েছে পাকিস্তান। এ জাতীয় ক্ষেপণাস্ত্র খুব নিচু দিয়ে উড়ে যায় বলে ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে ফাঁকি দিতে পারবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে