ছেলের পরীক্ষা কেন্দ্রে বাবার মৃত্যু

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২০; সময়: ১১:২২ পূর্বাহ্ণ |
ছেলের পরীক্ষা কেন্দ্রে বাবার মৃত্যু

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় ছেলের এসএসসি পরীক্ষার আসন বিন্যাস দেখতে গিয়ে লাশ হয়েছেন বাবা খোরশেদ আলম (৬৮)। রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার সলিমগঞ্জ ইউনিয়নের সলিমগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত খোরশেদ উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের মোক্তারামপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার ছেলে আমীরুল ইসলাম এবার সলিমগঞ্জ এ আর এম উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে যাচ্ছে। এই ঘটনায় রাসেল মিয়া নামের এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

আহত রাসেল পার্শ্ববর্তী নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার গাজীপুরা গ্রামের জিয়াউর রহমানের ছেলে। সে সলিমগঞ্জ ইউনিয়নের বাড়াইল গ্রামে তার খালাবাড়িতে থেকে লেখাপড়া করে। তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, খোরশেদ আলম ছেলে আমিরুলের এসএসসি পরীক্ষার আসন দেখতে উপজেলার সলিমগঞ্জ বালিকা উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে যান। কিন্তু স্কুলের ফটক বন্ধ থাকায় তিনি ফটকে থাকা তোরণের নিচে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এ সময় কয়েকজন পরীক্ষার্থী তোরণের ওপরে উঠে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে। এতে তোরণের ওপরের অংশ ভেঙে নিচে দাঁড়িয়ে থাকা খোরশেদ আলমের মাথায় পড়লে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

সলিমগঞ্জ পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম জানান, লাশের সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হবে।

নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রণোজিত রায়, স্কুলের গেট তালাবদ্ধ থাকায় কয়েকজন পরীক্ষার্থী নিজেদের আসন বিন্যাস দেখতে গেটের উপরে উঠে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করে। এতেই তোরণের উপরি অংশ ভেঙে নিচে দাঁড়ানো খোরশেদ আলমের মাথায় আঘাত লাগে। এ ঘটনায় রাসেল মিয়া নামের একজন পরীক্ষার্থীও আহত হয়েছে। তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে