বাগমারায় অবৈধ পুকুর খননের অভিযোগে যুবকের কারাদন্ড

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২০; সময়: ৭:১৩ অপরাহ্ণ |

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বাগমারা : অবৈধ ভাবে পুকুর খননের অভিযোগে রাজশাহীর বাগমারায় মজনু খাঁন (২৮) নামের এক যুবককে ১৫ দিনের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। সাজাপ্রাপ্ত মজনু খাঁন উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের সাঁকোয়া গ্রামের সেফাতুল্লাহর ছেলে। সাজাপ্রাপ্ত মজনু খাঁনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠিেেয়ছেন বাগমারা থানার পুলিশ।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মাড়িয়া ইউনিয়নের সাঁকোয়া গ্রামে অবৈধ ভাবে পুকুর খননের বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের নজরে আসে। বিষয়টি জানার পর পরই এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রে ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদ আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে অভিযান চালায়। আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যান্যরা পালিয়ে গেলেও মজনু খাঁনকে আটক করে পুলিশ। ওই সময় ভ্রাম্যমান আদালতের এ্যাক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফ আহম্মেদ অবৈধ ভাবে পুকুর খননের অভিযোগে মজনু খাঁনকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক শরিফ আহম্মেদ বলেন, নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধ ভাবে পুকুর খননের অভিযোগে মজনু খাঁনকে আটক করা হয়। আদালতে তিনি নিজের দোষ স্বীকার করায় তাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয় বলে তিনি জানান।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে