চীনে এবার বার্ড ফ্লু আতঙ্ক, হাজার হাজার মুরগি নিধন

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০; সময়: ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ |
চীনে এবার বার্ড ফ্লু আতঙ্ক, হাজার হাজার মুরগি নিধন

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে চীন ইতোমধ্যেই বিপর্যস্ত। হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। মৃতের সংখ্যা সাড়ে তিন শতাধিকের উপর। এমন অবস্থার মধ্যে এবার দেশটিতে ছড়িয়ে পড়ছে বার্ড ফ্লু। এতে দেখা দিয়েছে নতুন শঙ্কা।

ফলে আতঙ্কিত চীনারা পোষা কুকুর বিড়াল হত্যার পর এবার হাজার হাজার মুরগি নিধন শুরু করেছে।

ডেইলি মেইল অনলাইন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, চীনে এইচ৫এন১ ভাইরাসজনিত বার্ড ফ্লু দেখা দিয়েছে। এর উৎপত্তি দেশটির হুনান প্রদেশের শুয়াংকিং জেলা শহরের একটি পোল্ট্রি খামারে। ইতোমধ্যে সেখানে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার মুরগি মেরে ফেলা হয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, মানবদেহে বার্ড ফ্লু ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় ওই প্রদেশে ১৭ হাজার ৮২৮টি মুরগি নিধন করা হয়েছে।

যদিও মন্ত্রণালয়ে পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এখন পর্যন্ত কোনো মানব-সংক্রমণের (হিউম্যান এইচ৫এন১ ভাইরাস) খবর পাওয়া যায়নি।

এইচ৫এন১ ভাইরাসের কারণে এভিয়েন ইনফ্লুয়েঞ্জা হয়ে থাকে। এটি বার্ড ফ্লু নামেই পরিচিত। ২০১৫ সালে চীনের সিচুয়ান প্রদেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়। তবে এটি অন্যান্য প্রাণঘাতী ভাইরাসের তুলনায় কিছুটা দুর্বল বলে ধারণা করা হয়।

এদিকে ভাইরাসটি ভারতেও ছড়ানোর খবর পাওয়া গেছে। বিশ্ব প্রাণি স্বাস্থ্য সংস্থার (ওআইই) পক্ষ থেকে জানানো হয়, ছত্তিশগড়ের একটি পোল্ট্রি ফার্মে এ ভাইরাসজনিত বার্ড ফ্লু আক্রমণ করলে ২১ হাজার ৬০টি মুরগির মধ্যে ৫ হাজার ৬৩৪টি মারা যায়। পরে বাকিগুলোকে নিধন করা হয়।

করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতির মুখে চীনা অর্থনীতি। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে চীনের ৬০ বিলিয়ন ডলার ক্ষতির কথা জানানো হয়েছে।

অর্থনীতিতে এই ভাইরাসের প্রভাব এখনও সম্পূর্ণ নির্ণয় করা হয়নি। তবে চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ও গবেষকরা বলছেন, শুধু এই ভাইরাসের কারণে দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ২ শতাংশ পর্যন্ত কমে যেতে পারে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে