বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক, মানবিক ও শান্তির দর্শন নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২৩; সময়: ৮:৫৯ অপরাহ্ণ |
বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক, মানবিক ও শান্তির দর্শন নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে : খাদ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, পোরশা : খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের সকল পর্যায়েই শোষিত ও বঞ্চিত মানুষের পক্ষে থেকেছেন। তিনি ছিলেন শান্তির প্রতীক। বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক, মানবিক ও শান্তির দর্শন নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।

রবিবার পোরশা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জুলিও কুরি শান্তি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উদ্যাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যদানকালে এসব কথা বলেন। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এমন কোন খাত নেই যেখানে প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য পৌঁছায়নি। কমিউনিটি ক্লিনিক গরীব মানুষের চিকিৎসা সেবার জন্য তৈরি কে ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার। বিএনপি ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে সেই কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দিয়েছিল। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কমিউনিটি ক্লিনিক এখন বিশ্বে মডেল বিবেচিত হচ্ছে।

কৃষকবান্ধব সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে দেশে ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এদেশে খাদ্য সংকট হবেনা। কৃষকদের জন্য সরকার ভর্তূকি মূল্যে সার দিচ্ছে। বিনামূল্যে বীজ ও কৃষি উপকরণ দিচ্ছে। কৃষক তার ফসলের নায্য মূল্য পাচ্ছে। অথচ বিএনপির আমলে সার চেয়ে কৃষক গুলি খেয়েছিলো। প্রাণ গিয়েছিল ১৯ জন কৃষকের। যুক্তরাষ্ট্রের ভিসানীতি এদেশের ১৭ কোটি মানুষের জন্য লজ্জার উল্লেখ করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, অথচ বিএনপি এটা নিয়ে খুশি। বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিএনপি দেশের মানুষের জন্য রাজনীতি করেনা। সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য বারবার কারাবরণ করেছেন। অধিকার আদায়ে বদ্ধপরিকর ছিলেন তিনি। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে।

তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ হয়েছে মধ্যম আয়ের দেশ। তার কাছে দেশ নিরাপদ। ভবিষ্যতে তার কাছ দেশ থাকলে আরো উন্নত হবে। অনুষ্ঠানে খাদ্যমন্ত্রী বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এর আগে তিনি উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কতৃক আয়োজিত কৃষি প্রযুক্তি মেলা ২০২৩ এর উদ্বোধন করেন এবং মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন। পরে তিনি উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর কর্তৃক সমতলে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সদস্যদের মাঝে ভেড়া বিতরণ, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের বিভিন্ন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীদের সহায়তা এবং প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের হাতে একটি করে ল্যাপটপ তুলে দেন।

পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সালমা আক্তার এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য ও উপেজলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ্ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী। এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম, কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার সরকার, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহুরুল ইসলাম, নিতপুর ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক সহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বিকালে খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি জেলা পরিষদ ডাক বাংলা মিলনায়তনে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় যোগ দেন।

 

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে