বঙ্গবন্ধুর জুলিও-কুরি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা

প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২৩; সময়: ৯:৪৪ অপরাহ্ণ |
বঙ্গবন্ধুর জুলিও-কুরি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী : রবিবার (২৮ মে) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর ‘জুলিও-কুরি’ শান্তি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ শিশু একাডেমির রাজশাহী কার্যালয়ের মিলনায়তনে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমির রাজশাহী কার্যালয়ের যৌথ উদ্যোগে এ অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

আলোচনা সভায় বিভাগীয় কমিশনার জি এস এম জাফরউল্লাহ্, এনডিসি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। জেলা প্রশাসক মো: শামীম আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরএমপি’র কমিশনার মো: আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত ডিআইজি রশিদুল হাসান, রাজশাহী নিউ গভ. ডিগ্রী কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোঃ অলীউল আলম বক্তৃতা করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ তুলে ধরে আলোচনা করেন। তাঁরা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন ‘বিশ্বশান্তি আমার জীবনের মূলনীতি।’ তিনি স্পষ্ট করে উচ্চারণ করেন পৃথিবী দুভাগে বিভক্ত, শোষক আর শোষিত; আমি শোষিতের পক্ষে।’ তিনি দেশ বা বিদেশ যেখানেই মানবাধিকারের লঙ্ঘন দেখতেন, মানুষের ন্যায্য স্বাধীনতা খর্ব হওয়ার সংবাদ পেতেন; সেখানেই প্রতিবাদ করতেন।

তাঁরা বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের বন্ধু ছিলেন না, তিনি ছিলেন বিশে^র বন্ধু। তিনি নিজের জীবন নিয়ে কখনোও ভাবতেন না। বঙ্গবন্ধু সবসময় খেটে খাওয়া মেহনতি মানুষের কথাই ভাবতেন। আগামী প্রজন্মকে তাই জানাতে হবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কথা। তাঁর সারা জীবনের দর্শন আর বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে সর্বাধিনায়কত্বের প্রেক্ষাপটে তাঁকে জুলিও-কুরি পদক প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, বিশ্বশান্তি পরিষদ ১৯৭২ সালের ১০ অক্টোবর জুলিও-কুরি পদক প্রাপক হিসেবে বঙ্গবন্ধুর নাম ঘোষণা করেন।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা, রাজনীতিক, ব্যবসায়ী, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে শিশু একাডেমিতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে