আমাকে হয়তো মেরে ফেলা হবে: শামীম ওসমান

প্রকাশিত: অক্টোবর ২৬, ২০২৩; সময়: ২:০৯ pm |
আমাকে হয়তো মেরে ফেলা হবে: শামীম ওসমান

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : দেশে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের সময় যত ঘনিয়ে আসছে, ততই রাজনীতির মাঠ উত্তপ্ত হচ্ছে। সর্বোচ্চ শক্তি জানান দেওয়ার জোর চেষ্টা চালাচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলো। এরই অংশ হিসেবে বিএনপির নয়াপল্টনের পাশাপাশি মতিঝিলের শাপলা চত্বরে সমাবেশের ডাক দিয়েছে জামায়াত।

এদিকে সরকার ও পুলিশের পক্ষ থেকে সোজাসাপ্টা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে-জামায়াতকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। তবে শাপলা চত্বরে সমাবেশের ব্যাপারে এখনো অনড় রয়েছে দলটি। অন্যদিকে আওয়ামী লীগও সমাবেশের ডাক দিয়েছে।

একই দিনে বিএনপি-জামায়াত ও আওয়ামী লীগের কর্মসূচি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। এই ইস্যুতে একটি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে খোলামেলা কথা বলেছেন আওয়ামী লীগ নেতা ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

শামীম ওসমান বলেন, বিএনপির সঙ্গে জামায়াত শাপলা চত্বরে সভা ডেকে বসেছে। আমি এতে প্রচণ্ড শকড হয়েছি। আমি নতুন প্রজন্মের ছেলেদের কাছে হাত জোড় করে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি এ জন্য যে, পৃথিবীর মধ্যে একমাত্র রাষ্ট্র বাংলাদেশ, যেখানে স্বাধীনতাবিরোধী হয়েও রাজনীতি করার সুযোগ পায়। সভা-সমাবেশ করার সুযোগ পায়।

আ.লীগের এ সংসদ সদস্য বলেন, আমার কাছে মনে হচ্ছে- জামায়াত বাংলাদেশটাকে খুব দ্রুতগতিতে পেছনের দিকে নিয়ে যেতে চাচ্ছে। আগামী একমাস চরম উত্তেজনামূলক পরিবেশ থাকবে।

এর পর বিএনপি নামক দলটি একটা পর্যায়ে নাকে ক্ষত দিয়ে নির্বাচনে আসবে। তাদের আসতে হবে। নির্বাচনে তারেক রহমান আসতে দিচ্ছে না। উনি (তারেক) চাচ্ছেন, বাংলাদেশে কোনো অবস্থাতেই নির্বাচন করতে দেব না।

বিএনপির নির্বাচনে আসার প্রসঙ্গে শামীম ওসমান বলেন, তফসিল ঘোষণার পর যখন বিএনপির তর্জন-গর্জন ও বিদেশি প্রভুদের দিয়ে কাজ হচ্ছে না বুঝতে পারবে, ঠিক তখন তারা মানসিকভাবে শকড হবে। তখনই তারা নির্বাচনে আসবে। হ্যাঁ ওই সময় হয়তো শামীম ওসমান থাকবে না। আমাকে হয়তো মেরে ফেলা হবে। যেমন ১৬ জনকে মেরে ফেলা হয়েছিল। আমাকেও মেরে ফেলা হতে পারে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে