রাজশাহী কলেজে আন্তঃবিভাগ বিতর্ক চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০২৩; সময়: ৮:০৫ pm |
রাজশাহী কলেজে আন্তঃবিভাগ বিতর্ক চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা

নিজস্ব প্রতিবেদক : আন্তঃবিভাগ বিতর্ক চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার রাজশাহী কলেজ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সপ্তাহ ২০২৩ উপলক্ষ্যে রাজশাহী কলেজ মিরর ডিবেটিং ক্লাব আয়োজিত ‘আন্তঃবিভাগ বিতর্ক প্রতিযোগিতা- ২০২৩ এর ফাইনাল পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন বিভাগের ৩২ টি ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ৮টিসহ সর্বমোট ৪০ টি দল অংশগ্রহণ করে। ১৭ ও ১৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয় প্রাথমিক পর্ব। প্রথম পর্বের প্রতিযোগিতা শেষে বিভাগ পর্যায়ে ফাইনালে উন্নীত হয় বাংলা ও মার্কেটিং বিভাগ এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে পদ্মা মেঘনা দল। ১৯ নভেম্বর ফাইনাল বিতর্কে মার্কেটিং বিভাগকে পরাজিত করে বিজয়ী হয় বাংলা বিভাগ দল। বাংলা বিভাগের পক্ষে মাহি, মীম ও হৃদয় এবং মার্কেটিং বিভাগের পক্ষে শামীম, মোহাম্মদ এবং আবু সুফিয়ান প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। বিভাগ পর্যায়ে ডিবেটার অব দ্যা টুর্নামেন্ট নির্বাচিত হন মার্কেটিং বিভাগের শামীম এবং ডিবেটার অব দ্যা ফাইনাল নির্বাচিত হন বাংলা বিভাগের মাহি। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ৮ টি দল অংশগ্রহণ করে। ১৮ নভেম্বর প্রাথমিক পর্যায়ের বিতর্কের পর ফাইনাল বিতর্কে উত্তীর্ণ হয় পদ্মা ও মেঘনা দল।

চূড়ান্ত বিতর্কে বিজয়ী হয় মেঘনা দল। পদ্মা দলের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন একাদশ শ্রেণির নাবিল, ইমরোজ ও রাফিদ এবং মেঘনা দলের পক্ষে মুরসালিন, বাসার ও রাব্বি। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ডিবেটার অব দ্যা টুর্নামেন্ট নির্বাচিত হন পদ্মা দলের নাবিল এবং ডিবেটার অব দ্যা ফাইনাল নির্বাচিত হন মেঘনা দলের মুরসালিন।

চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাঃ আব্দুল খালেক, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোহাঃ ওলিউর রহমান, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক প্রফেসর আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, মিরর ডিবেটিং ক্লাবের উপদেষ্টা ও ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাম্যসাথী ভৌমিক, বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষকমণ্ডলী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।

এ সময় অধ্যক্ষ বলেন, নির্ধারিত বিষয়ে পক্ষে-বিপক্ষে নিজের যুক্তি উপস্থাপনের মাধ্যমে নিজের বক্তব্যকে প্রতিষ্ঠিত করাই বিতর্কের মূল উদ্দেশ্য। এর ফলে চিন্তার পরিধি, জ্ঞান গভিরতা বৃদ্ধি পায় আর বৃদ্ধি পায় প্রতিপক্ষের প্রতি সম্মান। বিতার্কিকদের যুক্তি উপস্থাপনের কৌশলের তিনি ভূয়সী প্রশংসা করেন। এদের মধ্য থেকে বাংলাদেশের ভবিষ্যত বিতার্তিকদের উদয় হবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। পুরো প্রতিযোগিতা আয়োজনের দায়িত্বে ছিলো রাজশাহী কলেজ মিরর ডিবেটিং ক্লাব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে