মেয়ের জন্মের এক মাস না যেতেই ব্রুনার সঙ্গে ছাড়াছাড়ি নেইমারের

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২৩; সময়: ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ |
মেয়ের জন্মের এক মাস না যেতেই ব্রুনার সঙ্গে ছাড়াছাড়ি নেইমারের

পদ্মাটাইমস ডেস্ক :  কোনো সম্পর্ক স্থায়ী হলো না ব্রাজিলিয়ান তারকা ফুটবলার নেইমারের। নতুন নারীর সঙ্গে অভিসারের, তো পরের দিন নেইমার বা ব্রুনা বিয়ানকার্দির ইনস্টাগ্রামে পোস্ট আসে সব কিছু মিটমাট হয়ে যাওয়ার। এর মধ্যে গত অক্টোবরে যখন ব্রুনা-নেইমারের ঘর আলো করে কন্যাসন্তান আসে, মনে হচ্ছিল সম্পর্কটা বুঝি পূর্ণতার দিকে এগোচ্ছে। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, সেটি ভুল ধারণা হিসেবেই প্রমাণিত হতে যাচ্ছে।

ব্রুনা বিয়ানকার্দি আজ ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে জানিয়ে দিয়েছেন, ব্রাজিল ও আল হিলাল সুপারস্টার নেইমারের সঙ্গে তার সম্পর্কটা শেষ হয়ে গেছে। দুজনের সম্পর্কে যা একটু টান, সেটি মাসখানেক আগে জন্ম নেওয়া মেয়ে মাভির জন্যই বলে জানিয়েছেন ব্রুনা।

‘ব্যাপারটা ব্যক্তিগত, কিন্তু যেহেতু নিয়মিতই হাজারো খবর, গুজব আর হাসিঠাট্টার বিষয়বস্তু হচ্ছিল, সে কারণে আমি আপনাদের জানিয়ে দিতে চাই যে, আমি কারও সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্কে আর নেই। আমরা মাভির মা-বাবা, এটাই আমাদের মধ্যে যা সম্পর্কের সেতু। আশা করি আমাকে আর এসব (নেইমারের বিশ্বাসঘাতকতা সংক্রান্ত) খবরের সঙ্গে জড়ানো হবে না। সবাইকে ধন্যবাদ’ – ইনস্টাগ্রামে আজ জানিয়ে দিয়েছেন ব্রাজিলিয়ান মডেল ব্রুনা।

ব্রুনা ও নেইমারের সম্পর্কটাতে শুরু থেকেই ঝামেলার গুঞ্জনের শেষ ছিল না। ব্রুনার সঙ্গে সম্পর্কের মধ্যেই বারবার নেইমারের সঙ্গে অন্য নারীকে জড়িয়ে সম্পর্কের গুঞ্জন উঠেছে, নেইমারের বিশ্বস্ততা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, আর ব্রুনা-নেইমারের ছাড়াছাড়ির গুঞ্জন ছড়িয়েছে। ব্রুনাও অবশ্য নেইমারকে ঘিরে যখনই এমন খবর ছড়িয়েছে, সেসব মুহূর্তে ইনস্টাগ্রাম পোস্ট-স্টোরিতে নেইমারকে কিছু বলতে ছাড়েননি।

এসবের মধ্যেই ২০২১ সালের জুনে নেইমার ইনস্টাগ্রামে বিশাল এক পোস্টে জনসমক্ষে ব্রুনার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। তার কারণে ব্রুনাকে অনেক অযাচিত খবরের, হাস্যরসের শিকার হতে হচ্ছে, সে জন্য দায় স্বীকার করেই ক্ষমা চেয়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার।

এর পর গত জুনে নেইমার ও ব্রুনা ঘটা করে জানিয়ে দেন যে, ব্রুনার গর্ভে নেইমারের সন্তান। এর পরও অবশ্য নেইমারের বিশ্বাসঘাতকতার গুঞ্জন থামেনি। এর মধ্যে গত অক্টোবরে মেয়ের জন্মের সময়ে ব্রুনার পাশে নেইমারের না থাকাও গুজব ছড়িয়েছে। ব্রুনা অবশ্য তখন নেইমারের সমালোচনা করেননি; বরং জানিয়েছেন নেইমার ব্রাজিলের উদ্দেশ্যে ফ্লাইটে ছিলেন বলে থাকতে পারেননি। ও চেষ্টা করেছে, কিন্তু সন্তানের জন্মের সময়ে ঠিক সময়ে উপস্থিত থাকতে পারেনি। যা-ই হোক, অন্য সব সময়েই তো ও ছিল। যে সময়টুকুতে থাকতে পারেনি, সেটা পরে ভালোভাবেই পুষিয়ে দিয়েছে। সব সময়ই মাভির সঙ্গে ছিল ও’ – সম্প্রতি এক পোস্টে জানিয়েছিলেন ব্রুনা।

সম্পর্কটা কখনই দুজনের একান্ত থাকেনি, এর সব খবরাখবরই বাজার হয়ে গিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত গড়াল ছাড়াছাড়িতে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে