বিয়ের আসর থেকে চলে গেলো বর, অতপর…

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৩, ২০২৩; সময়: ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ |
বিয়ের আসর থেকে চলে গেলো বর, অতপর…

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : খুলনার পাইকগাছা উপজেলায় দু’পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির জেরে বিয়ে না করেই বর চলে যাওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন কনে। শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) উপজেলার লতা ইউনিয়নের মুনকিয়া গ্রামের ঠাকুরদাস মন্ডলের মেয়ে তুলি মন্ডলের (১৮) সঙ্গে বটিয়াঘাটার কাইয়ুমখোলা গ্রামের বিষ্ণুপদ মন্ডলের চেলে সুদীপ্ত মন্ডলের (২৫) বিয়ের আয়োজন করে উভয় পরিবার।

স্থানীয়রা জানান, বরপক্ষ নির্দিষ্ট দিনে বিয়ে করতে আসলেও গোধূলিলগ্ন পেরিয়ে রাত ৯টার দিকে পৌঁছান তারা। এরপর কনে পক্ষের লোকেরা রাত ১২টা বা ৩টার লগ্নে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করতে প্রস্তাব দেয় বরপক্ষকে। তবে বেঁকে বসে বরপক্ষ। তাদের কথা, রাত ১০-১১টার মধ্যে বিয়ের কাজ শেষ করতে হবে। যদিও বরপক্ষের গোধূলীলগ্নে পৌঁছানোর কথা ছিলো। এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে মতদ্বন্দ্ব সৃষ্টি হলে এক পর্যায়ে বরপক্ষের লোকেরা ক্ষুব্ধ হয়ে চলে যায়।

পরবর্তীতে ছেলেপক্ষ বিয়ের জন্য মেয়েপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে। মেয়েপক্ষ তাতে রাজি না হওয়ায় কনে বিয়ের কনে তুলি লোকলজ্জা, অপমান ও ক্ষোভে ঘটনার ৪ দিন পর শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজ ঘরে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরিবারের লোকেরা তাৎক্ষণিক উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে