সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীদের ঋণের তথ্য চায় ইসি

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৪; সময়: ১২:৪৩ অপরাহ্ণ |
সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীদের ঋণের তথ্য চায় ইসি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের খেলাপি ঋণের তথ্য চেয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনেও যাতে ঋণ খেলাপি ব্যক্তি অংশগ্রহণ করতে না পারেন, এ জন্য মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের আগে রিটার্নিং অফিস তথ্য সরবরাহের কথা বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপসচিব এম মাজাহারুল ইসলাম এ সংক্রান্ত একটি চিঠি আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিবকে পাঠিয়েছেন।

চিঠিতে ইসি জানায়, সংবিধানের ৬৫ অনুচ্ছেদের (৩) দফার বিধান অনুসারে আগামী ১৪ মার্চ দ্বাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এ লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ইতোমধ্যে নির্বাচনী সময়সূচি জারি করা হয়েছে এবং নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব মনিরুজ্জামান তালুকদারকে রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে।

ইসি আরও জানায়, জাতীয় সংসদ (সংরক্ষিত নারী আসন) নির্বাচন আইন, ২০০৪ এর ধারা ২৯ অনুযায়ী আইনের সাথে অসামঞ্জস্য না হলে, প্রয়োজনীয় অভিযোজন সহকারে, সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে বলে বিধান রয়েছে।

সেই অনুযায়ী জাতীয় সংসদের ৩০০ আসনের নির্বাচনের ন্যায় জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনেও যাতে ঋণ খেলাপি ব্যক্তি অংশগ্রহণ করতে না পারেন।

এ বিষয়টি নিশ্চিতকরণের জন্য গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২ এর ১২ অনুচ্ছেদের সংশ্লিষ্ট বিধানাবলি (সংযুক্ত) এবং জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচনে অংশগ্রহণে ইচ্ছুক প্রার্থীদের ঋণ খেলাপি সংক্রান্ত তথ্য সংকলন ও সরবরাহ পদ্ধতি ইতোমধ্যে সংসদ নির্বাচনে অর্থ বিভাগ থেকে গত বছরের ২৮ নভেম্বর জারি হয়েছে।

সেই মোতাবেক নির্বাচন কমিশনের জারি করা সময়সূচি অনুসারে মনোনয়নপত্র দাখিলের দিন অর্থাৎ ১৮ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৪টার পর মনোনয়নপত্র দাখিলকারীদের নাম, পিতা/মাতা/স্বামীর নাম ও প্রয়োজনীয় অন্যান্য তথ্য বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে ইতঃপূর্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ন্যায় রিটার্নিং অফিসারের নিকট হতে সংগ্রহ করতে হবে।

সেই সাথে অর্থ মন্ত্রণালয় হতে জারিকৃত নির্দেশনার আলোকে ঋণ খেলাপি সংক্রান্ত তথ্য ১৯ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের সময়সীমার পূর্বে রিটানিং অফিসারের বরাবরে প্রদানসহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করা হলো।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে