রাজশাহীতে শুরু হচ্ছে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ টেক এক্সপো ২০২৪’

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২৪; সময়: ৩:২০ অপরাহ্ণ |
রাজশাহীতে শুরু হচ্ছে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ টেক এক্সপো ২০২৪’

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে ৫ দিনব্যাপি শুরু হচ্ছে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ টেক এক্সপো ২০২৪ রাজশাহী তথ্যপ্রযুক্তির প্রদর্শনী।
আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারী রাজশাহীস্থ কাদিরগঞ্জ স্বপ্নচূড়া প্লাজার ৩য় এবং ৪র্থ তলায় এই প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে।

এই উপলক্ষে মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে মহানগরীর মধুবন মাল্টিকুইসিন রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি রাজশাহী শাখা।

সমিতির রাজশাহী শাখার চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ টেক এক্সপো ২০২৪ রাজশাহীর আহ্বায়ক এএফ কাশেমী সোহেল সংবাদ সম্মেলনে প্রদর্শনীর বিস্তারিত তুলে ধরে বলেন, আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী থেকে স্বপ্নচূড়া প্লাজা চালু হতে যাচ্ছে। এউপলক্ষে ১৫ ফেব্রুয়ারী থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারী রাজশাহীস্থ কাদিরগঞ্জ স্বপ্নচূড়া প্লাজার ৩য় এবং ৪র্থ তলায় ‘স্মার্ট বাংলাদেশ টেক এক্সপো ২০২৪ রাজশাহী তথ্যপ্রযুক্তির প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

এদিন বিকাল ৩টায় রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এ.এইচ এম খায়রুজ্জামান (লিটন), প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উক্ত বাণিজ্যকেন্দ্র এবং তথ্যপ্রযুক্তি প্রদর্শনী উদ্বোধন করবেন। এছাড়াও ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এতে সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয় ‘স্বপ্নচূড়া প্লাজা’-এর ৩য় এবং ৪থ তলার পুরো ফ্লোর জুড়ে প্রায় ৩৪ হাজার বর্গফুট এলাকায় ৭৫টি দোকান মিলে এ বাণিজ্যকেন্দ্র। এতে সুলভে ও সহজে সর্বশেষ সংস্করণের ল্যাপটপ, ট্যাবলেট পিসি, স্মার্ট ডিভাইস ও সমজাতীয় পণ্য, কম্পিউটারের আনুষাঙ্গিক যন্ত্রপাতি, প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার এবং বিশেষায়িত তথ্যপ্রযুক্তিপণ্য কেনাকাটার সুযোগ থাকছে।

কেনাকাটার পাশাপাশি এসব পণ্য ও সেবার সর্বশেষ সংস্করণ পরখ করার এবং আকর্ষণীয় সুবিধাসমূহ সম্পর্কে অবহিত হওয়ার অবারিত সুযোগও থাকছে এখানে। আর এক ছাদের নিচেই সব সুবিধা পাওয়ায় গ্রাহকদের সময় ও অর্থেরও অনেক সাশ্রয় হবে। সেই সঙ্গে অযথা হয়রানি এবং প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কামুক্ত থাকতে পারবেন গ্রাহক ও তথ্যপ্রযুক্তিপ্রেমীরা।

এ বাণিজ্যকেন্দ্রে থাকছে কেন্দ্রীয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা। থাকছে লিফট ও চলন্ত সিঁড়ি। সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ নিশ্চিত করতে থাকছে জেনারেটরের ব্যবস্থা। প্রদর্শনীতে ৭০টি তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান/ব্রান্ড ৭৫টি দোকান/স্টল এবং ৯ টি প্যাভিলিয়ন প্রযুক্তিপণ্য ও সেবা প্রদর্শন করবে।

প্রতিদিন সকাল ১১ টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত তা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। প্রদর্শনীতে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তির হালনাগাদ সংস্করণের প্রযুক্তিপণ্য এবং স্মার্ট জীবনধারাভিত্তিক পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করা হবে। তথ্যপ্রযুক্তিবিশ্বের নতুন সব আবিষ্কারের খোঁজ মিলবে এখানে। প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া তথ্যপ্রযুক্তির দেশী-বিদেশী জনপ্রিয় ও বিখ্যাত ব্র্যান্ড, প্রস্তুতকারক, আমদানিকারক ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান সেসব উপস্থাপন করবে। শুধু পণ্য ও সেবার প্রদর্শনীতেই সীমাবদ্ধ থাকছে না এ প্রদর্শনী। ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিষয়ে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বৈচিত্র্যময় নানা আয়োজন।

মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য টিকেটের ওপর র‍্যাফেল ড্র’র আয়োজন থাকবে। এতে বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য বিজয়ীদের পুরস্কার হিসেবে দেয়া হবে।

প্রদর্শনী উপলক্ষে পৃষ্ঠপোষক, সহযোগী ও প্রদর্শক প্রতিষ্ঠানগুলো দিচ্ছে পণ্য ও সেবা বিক্রিতে দিচ্ছে আকর্ষণীয় উপহার এবং বিশেষ সুবিধা। ফলে দর্শনার্থীরা আকর্ষণীয় মূল্যে পছন্দের প্রযুক্তিপণ্য কেনাকাটা করতে পারবেন। মেলার প্রবেশ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। বিসিএস এর ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় প্রদর্শনীতে স্কুল শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের পরিচয়পত্র দেখানো সাপেক্ষে বিনামূল্যে প্রবেশের ব্যবস্থা থাকবে।

প্রদর্শনীর প্লাটিনাম স্পন্সর টিপিলিংক-এক্সেল এবং ইউনিভিউ। গোল্ড স্পন্সর হিসেবে থাকছে আসুস- গ্লোবাল ব্র্যান্ড, সাউথবাংলা কম্পিউটার- টেনডা, এইচপি-স্মার্ট। সিলভার স্পন্সর হিসেবে থাকছে কম্পিউটার সল্যুশনস ইঙ্ক (পিসি পাওয়ার, ডিপকুল, ডি-লিংক, ডিটেক), মনটেক রিভেঞ্জের, এমএসআই, অরাস-গিগাবাইট। প্রদর্শনীর মিডিয়া পার্টনার হিসেবে থাকছে সময় টিভি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে