দেশের সর্ব কনিষ্ঠ উপন্যাসিক লেখক সিরাজগঞ্জের তাসনিয়া ফেরদৌস

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪; সময়: ৫:০০ অপরাহ্ণ |
দেশের সর্ব কনিষ্ঠ উপন্যাসিক লেখক সিরাজগঞ্জের তাসনিয়া ফেরদৌস

নিজস্ব প্রতিবেদক,সিরাজগঞ্জ : অমর একুশে বই মেলায় এবার দেশের সর্ব কনিষ্ঠ উপন্যাসিক লেখক হিসেবে তাসনিয়া ফেরদৌস আত্বপ্রকাশ করেছে। তার লেখা উপন্যাস “অন্তরিত অতীত” প্রকাশনার মধ্য দিয়ে। ইতিমধ্যেই বইটি সব বয়সী পাঠকের মাঝে বেশ সাড়া ফেলেছে। ডিভাইসের এ যুগে স্কুল পড়ুয়া শিক্ষার্থীর লেখা রহস্যভরা কিশোর উপন্যাস (থ্রিলার) পাঠকদের মধ্যে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

শুক্রবার বিকেলে তাসনিয়া ফেরদৌসের লেখা বই উন্মোচন অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক নবীন ও কিশোর কিশোরীদের লেখার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে পাঠকদের বেশী বেশী বই কেনার আহবান জানিয়েছেন।

তাসনিয়া ফেরদৌস এ যাবৎ কালে দেশের সবচেয়ে কম বয়সী কিশোর উপন্যাস লেখক। সে সিরাজগঞ্জ সরকারি সালেহা ইসহাক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেনীর শিক্ষার্থী। এবারের অমর একুশে বই মেলায় তার লেখা প্রথম উপন্যাস “অন্তরতি অতীত”।

শুক্রবার বিকেলে বই মেলা প্রাঙ্গণে বই উন্মোচন মঞ্চে আনুষ্ঠানিক ভাবে তার লেখা উপন্যাসটি প্রকাশিত হয়। বইটি উন্মোচন করেন দুই বাংলার জনপ্রিয় কথা সাহিত্যিক সরদার ফারুক। অনুষ্ঠানে তাসনিয়া ফেরদৌস এর শিক্ষক যার প্রচেষ্টা ও পরিশ্রমে বইটি প্রকাশে সুযোগ হয়েছে সাহিত্য পত্রিকা বাঁধন’র সম্পাদক ও লেখক সিরাজগঞ্জ সরকারি বনোয়ারী লাল (বিএল) উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মেহেদী হাসান, একই স্কুলের শিক্ষক ও “মানুষ”পত্রিকার সম্পাদক কবি শফিক সেলিম সহ অন্যান্য কবি সাহিত্যিকরা অংশ গ্রহণ করেন।

অমর একুশে বই মেলার বই উন্মোচন মঞ্চের উপস্থাপক ও সঞ্চালক টি মনি শুধু এবছরের জন্য নয়, এযাবৎ কালের সবচেয়ে কনিষ্ঠ উপন্যাসিক লেখক হিসেবে তাসনিয়া ফেরদৌস’র নাম ঘোষণা করেন।

পিতা মাতার কর্মব্যস্ততার কারণে সন্তানদের প্রতি খেয়াল বা তাদের প্রাপ্ত স্নেহ ভালবাসা থেকে বঞ্চিত করলে, অনেক ক্ষেত্রে সন্তানের মতামতকে গুরুত্ব না দিলে মনের উপর যে প্রভাব পড়ে ফলে পিতা-মাতার সাথে সন্তানের যে দুরত্বের সৃষ্টি হয় সে বিষয়টিই মূলত তুলে ধরা হয়েছে উপন্যাসটিতে।

শুধু তাই নয় পিতা মাতার সাথে সন্তানের দূরত্ব নিরসনের পথও দেখিয়েছেন লেখক তার লিখনিতে। ইতিমধ্যেই উপন্যাসটি অভিভাবক সহ কিশোর ও তরুণদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। বইটি বই মেলার লিটলম্যাগ চত্বরের ১৩৮ নং স্টল মহাকালের গর্জন এবং ১৩৯ নং যমুনার ঢেউ স্টলেও পাওয়া যাচ্ছে। উপন্যাস বইটির প্রকাশনী প্রতিষ্ঠান জয় প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী আব্দুল মোমিন মন্ডল তার প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন দীর্ঘ দিনের প্রকাশনা জগতে কিশোর উপন্যাসটি তার প্রথম প্রকাশ। তবে প্রথম প্রকাশেই বইটি আলোচনায় এসেছে। তিনি আশাবাদি বইটি যারা পড়বে তারা অবশ্যই অন্যকে উৎসাহিত করবে।

যার একান্তু প্রচেষ্টা ও সহযোগীতায় বইটি এবারের বই মেলায় প্রকাশে সুযোগ পেয়েছে লেখক তাসনিয়া ফেরদৌস এর শিক্ষক ও লেখক মেহেদি হাসানও বইটি নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বই উন্মোচন অনুষ্ঠানে নবীন ও কিশোর লেখকদের লেখার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে পাঠকদের বেশী বেশী বই কেনার জন্য আহবান জানিয়েছেন। সেই সাথে দেশের কনিষ্ঠ উপন্যাসিক লেখক হিসেবে তাসনিয়া ফেরদৌস’র সফলতা ও দোয়া কামনা করেন।

তাসনিয়া ফেরদৌস এটিটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের সিনিয়র রিপোর্টার ফেরদৌস হাসান ও শহীদগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফরোজা মেহেরীনের বড় মেয়ে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে