বাগমারায় যশোরের সোহাগ হত্যার বিচার চেয়ে মণিরামপুরে মানববন্ধন

প্রকাশিত: মার্চ ৩, ২০২৪; সময়: ৭:২২ অপরাহ্ণ |
বাগমারায় যশোরের সোহাগ হত্যার বিচার চেয়ে মণিরামপুরে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের মণিরামপুর সরকারী ডিগ্রি কলেজের সামনে রাজশাহীর বাগমারায় সোহাগ হোসেনকে নির্মম ভাবে হত্যার ঘটনায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। রবিবার সকালে এই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

জানা গেছে, বাগমারা উপজেলার ঝিকরা ইউনিয়নের মরুগ্রাম ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের বন্ধু মনোহার হোসেন জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে মারপিটের স্বীকার হয়ে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হলে সোহাগ হোসেন (রাকিব) (১৯) বন্ধু কে দেখতে যাওয়ায় গত ২ ফেব্রুয়ারী রাত আনুমানিক সাড়ে ৯ টার দিকে একই গ্রামের ডাঙ্গাপাড়ার ফরিদ এর বাড়ীর সমনে ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসীরা সোহাগ হোসেন,(রাকিব) কে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

হত্যা কান্ডের ঘটনায় নিহতের বাবা যশোরের মণিরামপুর উপজেলার কুলটিয়া ইউনিয়নের আড়সিংগাড়ী গ্রামের শরিফুল ইসলাম(৪০) বাদী হয়ে রাজশাহী কোর্টে বেশ কয়েক জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

আসামীরা হল রফিকুল ইসলাম (৫০), আসাদুল ইসলাম (৪৫), রহিদুল ইসলাম (৩৮), জামাল (৪০), মুনসুর রহমান (৩৫), রনি (২৮), সাজ্জাদ হোসেন (২৮), বেলাল উদ্দিন (৩০), হেলাল উদ্দিন (৩২), সবুর (২৮), আতোয়ার সরকার (৪৯), লছির (৪০), নাইম (২৬), রাকিব (২৫), সোহেল (৩০), মামুনুর রহমান (মাবলু) (৩০), কালাম (৩২), মিলন (৩৫), আঃ সোবহান (৩৮), মতিউর রহমান (মতি) (৪০), শিবলু রহমান (৩০), শান্ত রহমান (২৫), আফজাল হোসেন (৫০), আঃ জব্বার আলী (৫০), নাইমুল ইসলাম (২৫), আব্দুল আজিজ মাখন (৪২) মোসলেম (৫২), নওশিদ হোসেন (বাবু) (৩০)পিতা-মৃত আফতাব হোসেন।

মানববন্ধনে নিহতের বাবা রফিকুল ইসলাম বলেন আমার ছেলেকে হত্যার ১ মাস পার হলেও শুধু ৪ জন আসামী গ্রেফতার করা হয়েছে। এরমধ্যে পুলিশ ২ জন এবং র‍্যাব ২ জনকে গ্রেফতার করেছে । তা ছাড়া আর কাউকে করতে পারেনি পুলিশ। আমি প্রশাসনের প্রতি বিশ্বাস রেখে বলতে চাই,আমার একটাই ছেলেকে যে ভাবে সন্ত্রাসীরা হত্যা করেছে আপনারা তাদেরকে দ্রুত সময়ের মধ্যে আইনের আওতায় আনুন। যদি আমার সন্তান আপনাদের ভাই মনে করে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করুন। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই।

প্রতিবাদ মানববন্ধনে মা-বাবার আহাজারিতে নিস্তব্ধ হয়ে যায় মণিরামপুর সরকারী ডিগ্রি কলেজ মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মণিরামপুর সরকারী ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান, প্রভাষক উত্তম কুমার, প্রভাষক ফিরোজ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ হামিদ, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এসএম বাপ্পি।

মানববন্ধন উপস্থিত ছিলেন কলেজের শিক্ষার্থী ও নিহতের মা বাবা সহ এলাকাবাসী। আসামীদের দ্রুত আটক ও শাস্তির দাবী জানায় তারা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে