ভারত মহাসাগর থেকে জলদস্যুতা নির্মূলে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ : মোদি

প্রকাশিত: মার্চ ১৯, ২০২৪; সময়: ১:৫১ অপরাহ্ণ |
ভারত মহাসাগর থেকে জলদস্যুতা নির্মূলে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ : মোদি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ভারত মহাসাগরে জাহাজ চলাচলের রুটের নিরাপত্তা রক্ষা এবং এই সমুদ্র থেকে জলদস্যুতা ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করার লড়াই চালিয়ে যেতে ভারত প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুলগেরিয়ার প্রেসিডেন্ট রুমেন রাদেভকে দেওয়া এক ফিরতি এক্সবার্তায় এ ইস্যুতে ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন তিনি।

তিন মাস জলদস্যুদের কব্জায় থাকা বাল্ক জাহাজ এমভি রুয়েন ও তার ১৭ নাবিকের সবাইকে সম্প্রতি উদ্ধার করেছে ভারতের নৌবাহিনী।

এই সাফল্যের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রীকে সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে বুলগেরিয়ার প্রেসিডেন্ট রুমেন রাদেভ বলেন, ‘ভারতীয় নৌবাহিনীর সাহসিকতাপূর্ণ অভিযানের জেরে বুলগেরীয় জাহাজ রুয়েন এবং সেটির ৭ বুলগেরীয় ক্রুসহ অন্যান্য ক্রুদের উদ্ধার সম্ভব হয়েওছে। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ।’

বুলগেরিয়ার প্রেসিডেন্টের এক্সপোস্টের জবাব দিয়ে পাল্টা এক পোস্টে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‘বুলগেরিয়ার প্রেসিডেন্টের শুভেচ্ছাবার্তা পাঠানোর ব্যাপারটি সত্যিই প্রশংসনীয়।

৭ বুলগেরীয়সহ ক্রুসহ অন্যান্য ক্রুদের উদ্ধার করতে পেরে আমরা খুবেই খুশি। ভারত মহাসাগরে নিরাপদে জাহাজ চালানোর স্বাধীনতাকে রক্ষা এবং সেখান থেকে সন্ত্রাসবাদ ও জলদস্যুতা নির্মূলের লড়াই চালিয়ে যেতে ভারত দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।’

গত ডিসেম্বরে মাল্টা থেকে ৩৭ হাজার ৮০০ টন পণ্য নিয়ে ভারত মহাসাগর পথে ভারতের ‍উদ্দেশে রওনা হয়েছিল এমভি রুয়েন। ১৪ ডিসেম্বর জাহাজটি ছিনতাই করে সোমালি জলদস্যুরা। তারপর থেকে জাহাজটি তারাই নিয়ন্ত্রণ করে আসছিল।

টানা ৪০ ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে গত ১৬ মার্চ শনিবার সোমালি জলদস্যুদের কাছ থেকে বাল্ক জাহাজ এমভি রুয়েনের নিয়ন্ত্রণ নেয় ভারতের নৌবাহিনী, উদ্ধার করে জলদস্যুর হাতে জিম্মি থাকা জাহাজটির ১৭ জন ক্রুকে। এই ক্রুদের মধ্যে ৭ জন বুলগেরিয়া, ৯ জন মিয়ানমার এবং ১ জন অ্যাঙ্গোলার নাগরিক।

এদিকে শনিবার যেদিন জলদস্যুদের কবল থেকে এমভি রুয়েন ও তার নাবিকদের উদ্ধার করে ভারতীয় নৌবাহিনী, সেদিনই বুলগেরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারিয়া গ্যাব্রিয়েল শনিবার এক ফেসবুক পোস্টে জানান, দেশটিতে নিযুক্ত ভঅরতীয় রাষ্ট্রদূত সঞ্জয় রানার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তার মাধ্যমে ভারতের নৌবাহিনী ও দেশটির সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি।

‘ভারতীয় সেনাবাহিনীর বীরত্বপূর্ণ অভিযানে এমভি রুয়েন এবং তার সব ক্রুর মুক্তি সম্ভব হয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনীকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

ক্রুদের সবার শারীরিক অবস্থা ভাল রয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। বুলগেরীয় নাগরিকদের শিগগিরই দেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে,’ ফেসবুক পোস্টে বলেছেন মারিয়া গ্যাব্রিয়েল।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে