এনায়েতপুরে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষক আটক

প্রকাশিত: মার্চ ১৯, ২০২৪; সময়: ৭:৫৪ অপরাহ্ণ |
এনায়েতপুরে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষনের অভিযোগে বৃদ্ধ ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ। আটক আয়নাল হক প্রামানিক (৬২) এনায়েতপুর মুদি পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। এদিকে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আহম্মদ মোস্তফা খান বাচ্চুর নেতৃত্বে ধর্ষককে নিয়ে দেনদরবারের শালিসী বেঠকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেও শেষ রক্ষা হয়নি।

জানা যায়, এনায়েতপুর মুদিপাড়া গ্রামের হতদরিদ্র গোলাম মোস্তফার মেয়ে (২২) মানষিক প্রতিবন্ধীকে মঙ্গলবার ভোরে ফুসলিয়ে এলাকার হাজী কোরবান তালুকদারের নির্জন বাগানবাড়িতে বৃদ্ধ আয়নাল হক ব্যাপারী (৬২) ধর্ষন করে। পাশে এনায়েতপুর ইসলামীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম শিক্ষার্থীদের কোচিং করানোর সময় বিষয়টি দেখে পাশের লোকজনকে অবহিত করে। এরপর ঐ ধর্ষককে সকলে ধরে ফেলে। পরে ঘটনাটি দ্রুত ধামাচাপা দিতে গ্রামের বাসিন্দা এনায়েতপুর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আহম্মদ মোস্তফা খান বাচ্চুকে ম্যানেজ করে তার নেতৃত্বে শালিসী বৈঠক বসে। তখন গ্রামের মাতব্বর ছানোয়ার হোসেন (ছানু তালুকদার), নুরু মোদী সহ কয়েকজন বসে আহম্মদ মোস্তফা খান বাচ্চু অপরাধী ধর্ষক আয়নাল হককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে। পরে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে পুলিশ খবর পেয়ে দ্রুত অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে গ্রেফতার করে। এছাড়া ধর্ষীতা নারীকেও থানায় নিয়ে আসে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। তখন ঐ নারী পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দি দেয়।

এ ব্যাপারে প্রতিবন্ধী নারীর মামাতো ভাই জিলানী হোসেন ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা জানান, ধর্ষককে আইনের আওতায় না এনে ঘটনার পরপরই আওয়ামীলীগ নেতা বাচ্চু খান প্রভাব খাটিয়ে ধর্ষককে শাস্তি থেকে বাঁচানোর জন্য শালিসী বৈঠক বসিয়ে মাত্র ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে। একজন প্রতিবন্ধী নারীর ইজ্জতের মুল্য ৫০ হাজার টাকা কিভাবে হয়। এজন্য চাপ সৃষ্টি করলেও তা আমাদের পরিবারের কেউ মানেনি। আমরা চাই ধর্ষক সহ মাতব্বরদেরও শাস্তি।  এছাড়া খুব দ্রুত পুলিশ ব্যবস্থা নেয়ায় আমরা কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

এদিকে প্রধান শালিস কারক এনায়েতপুর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আহম্মদ মোস্তফা খান বাচ্চু জানান, ধর্ষককে থানায় নিয়ে গেছে। সেখানে যোগাযোগ করেন। আমি কিছু জানিনা।

এ বিষয়ে এনায়েতপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, আমরা খবর পেয়ে সাথে-সাথে অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে গ্রেফতার করেছি। নির্যাতীতা প্রতিবন্ধী নারী স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দি দিয়েছে। মামলা রুজু হচ্ছে। শালিস কারকদেও বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে