মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো সোনার খণ্ড

প্রকাশিত: মার্চ ২২, ২০২৪; সময়: ৩:০২ অপরাহ্ণ |
মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এলো সোনার খণ্ড

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ব্রিটেনের শ্রপশায়ারে সম্প্রতি মাটির নিচে পাওয়া গেছে বিশালাকৃতির একটি সোনার খণ্ড। এত বড় সোনার খণ্ড এর আগে পাওয়া যায়নি। সোনার এই খণ্ডটির ওজন ৬৪ গ্রামেরও বেশি।

সোনার এই খণ্ডটি পেয়েছেন ৩৫ বছর ধরে ধাতব বস্তু শনাক্তকরণের কাজ করা রিচার্ড ব্রোক। ৬৭ বছর বয়সী ব্রোক তার সামারসেটের বাড়ি থেকে শ্রপশায়ার হিলসে যান।

সেখানে একটি কৃষিজমিতে গুপ্তধন খোঁজার জন্য খোঁড়াখুঁড়ি চলছিল। রিচার্ড ব্রোক সেখানে যান ও তার সঙ্গে থাকা যন্ত্র দিয়েই ধাতব বস্তুটিকে শনাক্ত করেন।

উদ্ধার হওয়া এই ধাতব বস্তুটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘হিরোস নাগেট’। মাটি থেকে ১৩ থেকে ১৫ সেন্টিমিটার গভীরে এই ধাতব বস্তুটি ছিল। ধাতব বস্তুটি খুব তাড়াতাড়ি নিলামে উঠবে বলে জানা গেছে।

ধারণা করা হচ্ছে এই সোনার খণ্ডটির দাম হতে পারে ৩০ হাজার পাউন্ড। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৪১ লাখ ৪৬ হাজার ৮৭৪ টাকা। সোনার খণ্ডটির ওজন ৬৪.৮ গ্রাম।

তবে রিচার্ড ব্রোক জানিয়েছেন, সেই ধাতব বস্তুটিকে চিহ্নিত করা খুব একটা সহজ কাজ ছিল না। ব্রোক জানান, যখন তিনি কৃষিজমিতে গিয়েছিলেন, তখন তার কাছে থাকা কিটটি নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

পুরোনো যন্ত্র দিয়ে কাজ করতে বাধ্য হয়েছিলেন ব্রোক। তবে সেটিও ঠিকমতো কাজ করছিল না। শেষ পর্যন্ত ক্রটিপূর্ণ যন্ত্র দিয়েই ধাতব বস্তুটিকে শনাক্ত করেছিলেন ব্রোক।

তিনি জানান, সেখানে সবার কাছেই আধুনিক যন্ত্র ছিল। কিন্তু তার কাছে তিনটি পুরোনো যন্ত্র ছিল। সেই যন্ত্র দিয়েই শনাক্তকরণের কাজ শেষ করতে হয়েছে।

এর আগে গ্রেট ব্রিটেনের ওয়েলস ও স্কটল্যান্ডে বড় আকৃতির সোনার খণ্ড উদ্ধার করা হয়েছিল। ওয়েলসে যে সোনার খণ্ডটি পাওয়া গিয়েছিল, তার ওজন ৯৭.১২ গ্রাম ও স্কটল্যান্ডে যে সোনার খণ্ডটি পাওয়া যায় সেটির ওজন ১২১.৩ গ্রাম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে