রাজশাহীতে নারী উদ্যোক্তাদের উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা ও সনদপত্র বিতরণ

প্রকাশিত: মে ২১, ২০২৪; সময়: ২:৪২ অপরাহ্ণ |
রাজশাহীতে নারী উদ্যোক্তাদের উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা ও সনদপত্র বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীতে তৃণমূল পর্যায়ে অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্পে দিনব্যাপী উদ্যোক্তাদের উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালা ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২১মে) রাজশাহী মহানগরীর শাহ্ ডাইন কনভেনশন হলে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

জাতীয় মহিলা সংস্থা রাজশাহী জেলা সভাপতি মর্জিনা পারভীনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর।

উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, তৃণমূল পর্যায়ে অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকশা সাধন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক প্রভাষ চন্দ্র রায়।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকু, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রণিবিদ্যা বিভাগের প্রফেসর ড. মোহা. মাইনুল হকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সভার সভাপতি মর্জিনা পারভিন স্বাগত বক্তব্যে বলেন, দেশরত্ন শেখ হাসিনা নারীদের এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে নিরলস ভাবে কাজ করে চলেছেন। তিনি রাজনীতিতে নারীদের ক্ষমতায়নের জন্য যেমন অগ্রাধিকার দিয়েছেন তেমনি সমাজে নারীদের স্বাবলম্বি করে গড়ে তোলার জন্য বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়ে নারীদের উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন দেখিয়ে নারীরা আজ সমাজে প্রতিষ্টিত হয়েছে।

জাতীয় মহিলা সংস্থা রাজশাহী অফিসে ৭টি ট্রেডে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে অনেকে উপার্জন করে অর্থনৈতিক ভাবে লাভবান হয়েছে। নারীরদের পুরষরা এক সময় অবহেলা করতো। সারাদিন ঘরের কাজের মানুষ মনে করতো। সেই ধারণা থেকে নারীরা আজ বের হয়ে এসে দেখিয়ে দিয়েছে নারীরাও পারে। জাতীয় মহিলা সংস্থা নারীদের মাস ব্যাপি প্রশিক্ষণ দেয় সেই সাথে প্রতিদিন যাতায়াত খরচটাও দেয়। যাতে ঘরের পুরুষটা বা স্বামী না বলতে পারে টাকা দিতে পারবো না বা নারীদের যাতে স্বামীর নিকট থেকে রিকশা খরচ না চাইতে হয় সেই চিন্তা ভাবনা শেখ হাসিনা করেছেন বলেই নারীর আজ অনেক এগিয়েছে।

প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর তার বক্তব্যে আগে নারীদের নিজেদের প্রস্তুত হয়ে কাজে লাগার উদ্বুদ্ধ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর পর দেশকে অনুন্ন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন তিনি হলেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আসলেন, দেখলেন এবং জয় করলেন। বঙ্গবন্ধু যেসব স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই সব স্বপ্ন পূরণে শেখ হাসিনা কাজ করে চলেছেন। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশর সংবিধানে যুক্ত করে গেছেন সর্বক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণে অগ্রাধিকার দিতে হবে। শেখ হাসিনা তারই স্বপ্ন পূরণে কাজ করছেন এবং সবকিছু জয় করছেন।

তিনি আরো বলেন, ধর্মের নামে নারীদের পিছিয়ে রাখা যাবে না। ইসলামে প্রথম নারী উদ্যোক্তা যে অবদান রেখেছিলেন তিনি হলেন বিবি খাদিজা। তিনি অনেক কাজ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী অনেক গুলো কাজ করছেন। তার মধ্যে রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে বিশ্বে ৭ম স্থান অধিকার করছে। এছাড়াও বাংলাদেশ নানান কাজে সাফল্য অর্জন করে সুনায় কুড়িয়েছে। তিনি নারীদের যেকোন কাজে যাওয়ার আগে নিজে জানা ও প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান।

পরে অতিথিবৃন্দ বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষনার্থীদের মাঝে সনদপত্র তুলে দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে