উন্নয়নের অভিজ্ঞতা নিতে রাসিক পরিদর্শনে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরগণ

প্রকাশিত: মে ২৮, ২০২৪; সময়: ৭:৩০ অপরাহ্ণ |
উন্নয়নের অভিজ্ঞতা নিতে রাসিক পরিদর্শনে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরগণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) এর প্রশিক্ষণ কোর্সে পারস্পরিক শিখন কর্মসূচির আওতায় ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরগণ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সফরে এসেছেন। সফরের প্রথম দিন তাঁদের অংশগ্রহণে সোমবার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও  রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে উন্নয়ন হচ্ছে। দেশের আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধি পাওয়া সিটি কর্পোরেশনগুলোতে বরাদ্দও পূর্বের তুলনায় বেড়েছে। প্রধানমন্ত্রী রাজশাহী মহানগরীর উন্নয়নে প্রায় ২৭০০ কোটি টাকার একটি বৃহৎ অনুমোদন দিয়েছেন। সেই প্রকল্পের কাজ চলমান। নগরীর রাস্তা প্রশস্তকরণ, ড্রেন নির্মাণ, ফ্লাইওভার নির্মাণ, দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি স্থাপন সহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। রাজশাহী সারাদেশে পরিচ্ছন্ন, সবুব ও বাসযোগ্য নগরী হিসেবে পরিণত হয়েছে। এই নগরীর সুনাম দেশের সীমনা পেরিয়ে বিদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। নগরবাসীর সহযোগিতায় সকলের আন্তরিক প্রচেষ্টায় এটি অর্জন সম্ভব হয়েছে। এই সুনাম ধরে রেখে রাজশাহীকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।

তিনি বলেন, আমাদের রাজস্ব আয় কম। সীমিত সম্পদের মধ্যেও আমরা উন্নয়ন করে দেখাতে পেরেছি। রাজস্ব আয় বৃদ্ধি করতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের আয়তন চারগুন বৃদ্ধির কাজ চলমান রয়েছে। বর্ধিত এলাকায় উন্নয়ন ও নাগরিক সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হবে।

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ শফিকুল ইসলাম বলেন, রাজশাহীতে না আসলে বুঝতে পারতাম না এই নগরী এতো সুন্দর। আমি পৃথিবীর অনেক দেশ ঘুরেছি। রাজশাহীতে এসে বিদেশের স্বাদ পেয়েছি। একটি শহরকে কত সুন্দর করে গড়া যায়, এখানে না আসলে বুঝতে পারতাম না। রাজশাহী গ্রিনসিটি, ক্লিনসিটি। আমাদের সিটিকে আমরা সেভাবে গড়ে তুলতে পারিনি। রাজশাহী এসে যে অভিজ্ঞতা অর্জন করলাম, সেটিকে কাজে লাগিয়ে আমরা ময়মনসিংহ সিটি গড়বো।

অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটুর পক্ষ থেকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন ময়মনসিংহের কাউন্সিলরবৃন্দ। অনুষ্ঠানে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দকে শুভেচ্ছা উপহার প্রদান করা হয়।

রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিনের সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় বক্তব্য দেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ শফিকুল ইসলাম, রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নিযাম উল আযীম, এনআইএলজির উপ-পরিচালক খন্দকার মোঃ মাহবুবুর রহমান। মঞ্চে উপবিস্ট ছিলেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-৩ রোকশানা শিরীন, রাসিকের প্যানেল মেয়র-২ ও ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, প্যানেল মেয়র-৩ ও ১নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর তাহেরা খাতুন মিলি, রাসিকের প্রধান প্রকৌশলী নুর ইসলাম তুষার। অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত কাউন্সিলরবৃন্দ, রাসিকের সকল কাউন্সিলরবৃন্দসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম ও সাফল্যের বিষয়ে তথ্য চিত্র উপস্থাপন করেন উপ-প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা সেলিম রেজা রঞ্জু।

উল্লেখ্য, সফরের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ও আগামীকাল বুধবার রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের নগরী বিভিন্ন সড়কে রাতের আলোকায়ন, রাত্রীকালীন আবর্জনা অপসারণ কার্যক্রমসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিদর্শন করবেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরগণ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে