চুলের সুরক্ষায় কখনই যা করবেন না

প্রকাশিত: জুন ১২, ২০২৪; সময়: ১২:৫৩ অপরাহ্ণ |
চুলের সুরক্ষায় কখনই যা করবেন না

পদ্মাটাইমস ডেস্ক: প্রতিদিনই চুলের সাথে বেশকিছু মারাত্মক ভুল অজান্তেই আমরা করছি। যাতে আমাদের চুল হয়ে পড়ছে আরও দুর্বল। ঈদের আগে যেন চুলের সাথে এ ভুলগুলো আরও বাড়তে শুরু করে। তাই আজকের আয়োজনে জেনে নিন চুলের সুরক্ষায় যে ভুলগুলো করা থেকে সব সময় এড়িয়ে চলবেন।

ভোরে কিংবা সকালে যখনই ঘুম থেকে উঠুন না কেন, ঘুম থেকে উঠেই বেশিরভাগ মানুষই চুলের সঙ্গে করে বসে বেশকিছু ভুল। আর এ ভুলেই চুল পড়া সমস্যা বেড়ে যায় আগের তুলনায় দ্বিগুণ। এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আজকের আয়োজনে থাকছে চুলের সঙ্গে করা বেশকিছু মারাত্মক ভুল নিয়ে তথ্য, যেসব ভুলে চুলের স্বাস্থ্য নাজুক হয়ে পড়ে। এতেই বাড়তে শুরু করে চুল ঝরে পড়ার প্রবণতা। চুলের সমস্যায় দায়ি কিছু ভুলের কথা জানিয়েছেন ডাক্তার তাসনিম জারা। আর এ ভুলের সমাধানে দিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ চারটি টিপসও। আসুন চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সেই ভুল আর গুরুত্বপূর্ণ ৪টি টিপস জেনে নিই-

১. ঘুম থেকে উঠেই চুল আচড়ানো ও বাঁধার অভ্যাস অনেকের আছে। না জেনে ভুল করে অনেকেই রাবার ব্যান্ড দিয়ে চুল বাঁধেন। এমনটা করবেন না। কারণ রাবার ব্যান্ড দিয়ে চুল বাঁধলে চুল ভেঙে যায় ও চুলে জটের সৃষ্টি হয়। তাই সব সময় চুল বাঁধুন কাপড় দিয়ে তৈরি এমন রাবার ব্যান্ড দিয়ে।

২. খুব শক্ত করে চুল বাঁধলে চুলের গোড়া আলগা হওয়ার প্রবণতা শুরু হয়। এছাড়া খুব টাইট করে চুল বাঁধার ভুলেও চুলের সমস্যা তৈরি হয়। ডাক্তার তাসনিম বলছেন, যে স্থানে টান পড়ে সেই হেয়ার লাইনে চুল পড়ে যায়।
চিকিৎসা শাস্ত্রে একে বলে ট্রাকশান অ্যালোপেশিয়া। মনে রাখবেন, অনেক সময় টাইট করে চুল বাঁধা মাথা ব্যথার কারণও হয়ে দাঁড়ায়।

৩. দ্রুত গোসল সেরে নিতে এবং ঝামেলা এড়াতে শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহার বাদ দিয়ে দেন অনেকেই। এ ভুলেও চুলের স্বাস্থ্য নাজুক হয়ে পড়ে। শ্যাম্পু করার পর কন্ডিশনার না দেয়ার ভুল কখনই করা যাবে না বলে জানিয়েছেন ডাক্তার তাসনিম জারা। কারণ শ্যাম্পু মাথা ও চুলের ধুলোবালি সরানোর পাশাপাশি মাথার ও চুলের জন্য দরকারি প্রাকৃতিক তেল সিবামও সরিয়ে ফেলে। তাই এ সমস্যা সমাধানে কন্ডিশনার কাজ করে। চুলের মধ্যে ফ্রিকশান কমিয়ে চুলকে আরও মসৃণ ও ঝলমলে করে তোলে। তাই একটু কষ্ট হলেও চুলের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

৪. গোসলের পর চুল না শুকিয়েই অনেকে বিছানায় শুয়ে পড়েন। এমন ভুল কাজ কখনই করা যাবে না। কারণ গোসলের পর চুল ভেজা থাকে। আর ভেজা চুল নিয়ে ঘুমালে চুল দুর্বল হয়ে পড়ে। চুলের গোড়া নরম হয়ে যায়। অল্পতেই চুল পড়ে যায়। চুলের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতে এ ভুলগুলো না করলেই চুল রুক্ষ্ম ও নির্জীব হবে না। বরং থাকবে ঝলমলে ও প্রাণবন্ত। সেইসঙ্গে চুল ঝরে পড়ার প্রবণতাও কমবে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে