প্রতিদিন লিপস্টিক ব্যবহার করছেন? যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা

প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৪; সময়: ১১:০১ পূর্বাহ্ণ |
প্রতিদিন লিপস্টিক ব্যবহার করছেন? যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : নারীদের প্রসাধনীর অন্যতম একটি লিপস্টিক। পোশাক এবং অন্যান্য অনুষঙ্গ অনুযায়ী নারীরা লিপস্টিকের রং নির্বাচন করেন। প্রায় অময় দেখা যায় নারীরা প্রায় প্রতিদিন লিপস্টিক ব্যবহার করেন। প্রতিদিন লিপস্টিক ব্যবহার কোনো ক্ষতি ডেকে আনে কিনা সে প্রসঙ্গে কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা টাইলমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, লিপস্টিকে যে রাসায়নিক ব্যবহার করা হয় তা ত্বকের জন্য খারাপ ৷ ঠোঁটের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করলেও লিপস্টিক ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর ৷ বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রতিদিন লিপস্টিক লাগালে কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে ।

শুষ্ক ঠোঁট: বাজারে যেসব লিপস্টিক পাওয়া যায়, তার বেশির ভাগেই ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকে । বিশেষজ্ঞদের মতে, এগুলি নিয়মিত লাগালে ঠোঁট শুকিয়ে যাবে। এটাও বলা হয় যে প্রতিদিন লিপস্টিক লাগালে ঠোঁট ফাটতে পারে । তাই কেনার সময় এমন লিপস্টিক বেছে নিতে বলা হয় যাতে ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকে না । ‘কন্টাক্ট ডার্মাটাইটিস’ জার্নালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে জানা যায় যে মহিলারা প্রতিদিন লিপস্টিক লাগান, তাদের ঠোঁট শুষ্ক হওয়ার সম্ভাবনা তিন গুণ বেশি । নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ মেডিসিনের ডার্মাটোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. জেনিফার এম লিন এই গবেষণায় অংশ নিয়েছিলেন । তিনি বলেন, প্রতিদিন লিপস্টিক ব্যবহার করলে ঠোঁটে সংক্রমণ হওয়ার সম্ভবনা বেশি ও ঠোঁট শুষ্ক হয়ে যায়।

অ্যালার্জি: বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিদিন লিপস্টিক ব্যবহার করলে অ্যালার্জি, চুলকানি, ফোলাভাব এবং ঠোঁট লাল হয়ে যাওয়ার মতো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে ।

সংক্রমণ: লিপস্টিকে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়াগুলি ত্বকের সংক্রমণের কারণ বলে মনে করা হয় । তাই বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দেন লিপস্টিক ব্যবহারের পর হাত ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে ও অ্যাপ্লিকেটারগুলি পরিষ্কার রাখা প্রয়োজন ৷

স্বাস্থ্য সমস্যা: লিপস্টিকে ক্ষতিকারক ধাতু, রাসায়নিক এবং প্যারাবেন বেশি থাকে । এই কারণে লিপস্টিকের রাসায়নিক পদার্থ রক্তে মিশে স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে বলে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা । ক্যালিফোর্নিয়া ইউনিভার্সিটির গবেষকরা ৩০ জন মেয়ের উপর গবেষণা চালিয়ে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন ।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে