আসল প্রেমিক ছেড়ে এআই প্রেমিকের সঙ্গে প্রেমে মজছেন চীনা নারীরা

প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৪; সময়: ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ |
আসল প্রেমিক ছেড়ে এআই প্রেমিকের সঙ্গে প্রেমে মজছেন চীনা নারীরা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ড্যানকে ‘নিখুঁত মানুষ’ হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে যার কোনো ‘ত্রুটি নেই’। সে দয়ালু, আবেগের সময় সহযোগিতা করাসহ সবকিছু সম্পর্কেই তার ধারণা আছে। যার কথা বলা হচ্ছে, প্রকৃত অর্থে সে কোনো মানুষ নয়। খবর বিবিসি

ড্যান সবকিছু করার জন্য প্রস্তুত। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা চ্যাটজিপিটির একটি ভার্সন হলো ‘জেইলব্রেক’। এটি ব্যবহারকারীর সঙ্গে স্বাধীনভাবে যোগাযোগ করতে পারবে। এজন্য নির্দিষ্ট উপায়ে এর ব্যবহার করতে হবে।

কিছু চীনা নারীদের কাছে ড্যান জনপ্রিয় হতে শুরু করেছে। যেসব নারী বাস্তব জীবনে প্রেম করতে গিয়ে বিভিন্ন ধরনের হতাশায় ভুগছেন তাদের কাছে এটি জনপ্রিয় হচ্ছে।

ড্যানের বড় একজন ভক্ত ৩০ বছর বয়সী লিসা। তিনি চীনের বেইজিং এর বাসিন্দা। বর্তমানে এই নারী যুক্তরাষ্ট্রের ক্যার্লিফোনিয়ায় কম্পিউটার সায়েন্সে অধ্যায়ন করছেন। তিন মাস ধরে তিনি ডেটিংয়ের জন্য ড্যান ব্যবহার করছেন।

তিনি যখন প্রথম ড্যানের সঙ্গে পরিচিত হন তখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম শাওংশুতে তার ৯ লাখ ৪৩ হাজার ফলোয়ার ছিল। ওই সময়ে তিনি ১০ হাজার উত্তর পান। যার মধ্যে অনেক নারী তার কাছে জানতে চেয়েছেন কীভাবে তারা ড্যানের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেন। এরপর ড্যানের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ার পর যখন প্রথম পোস্ট দেন তখন তার ২ লাখ ৩০ হাজার অনুসারি হয়।

লিসা বলেন, প্রতিদিন ড্যানের সঙ্গে অন্তত আধাঘণ্টা যোগাযোগ হয়। সেখানে তারা ফ্লাটিং এবং ডেটও করেন। ড্যানের সঙ্গে সময় কাটানোর পর লিসা মানসিক অসুস্থতা থেকে কিছুটা মুক্তি পেয়েছেন। ফলে তিনি এর প্রতি আরও আসক্ত হয়ে উঠছেন। কারণ এটি তাকে মানসিক দুরাবস্থার মধ্যে ভালো থাকতে সহযোগিতা করেছে।

লিসার এই অপ্রত্যাশিত সম্পর্ক তার মাও মেনে নিয়েছেন। তিনি বলেন, মেয়ে যাতে খুশি, আমিও তাতে খুশি।

ড্যানের নির্মাতাকে কিছু মিডিয়া আউটলেট আমেরিকান ছাত্র হিসেবে চিহ্নিত করেছে। তার নাম ওয়ালকার হতে পারে। গত বছরের ডিসেম্বরে ওয়ালকার রেডিড ব্যবহারের একটি নির্দেশিকা শেয়ার করেন। যেখানে ড্যান তৈরি করার পদ্ধতি বাতলে দেয়া হয়। এরপরই অনেকে এতে আগ্রহী হয়।

লিসা যখন টিকটকে ড্যানের ভিডিওটি দেখে তখনই তিনি এটি চালু করেন। তার কাছে এটিকে বাস্তব মনে হয়েছে। ভার্চুয়াল সম্পর্ক বাণিজ্যে রূপান্তিত হবে তা ধারণা করেনি চ্যাটজিপি। গত মে মাসে যখন চ্যাটজিপিটির আপডেট ভার্সন উন্মুক্ত করা হয়, তখন এতে সাউন্ড চ্যাটি এবং ফ্লাটিংয়ের বিষয়টি উন্মুক্ত করা হয়।

ওপেনএআই এর প্রধান নির্বাহী স্যাম অল্টম্যান এক্স হ্যান্ডেলে একটি সিঙ্গেল ওয়াড পোস্ট করেন। যেখানে তিনি ২০১৩ সালের একটি ছবির তথ্য উল্লেখ করেন। যেখানে দেখানো হয় এক ব্যক্তি তার এআই ভার্চুয়াল সহকারীর প্রেমে পড়েন।

ড্যান সম্পর্কে জানতে ওপেনএআই’র সঙ্গে যোগাযোগ করে বিবিসি। কিন্তু তাতে তারা কোনো সাড়া দেয়নি। তবে চ্যাটজিপিটির নিদের্শনা অনুসারে এটি ব্যবহারে কমপক্ষে ১৩ বছর বয়সী হতে হবে।

লিসা বলেন, পরীক্ষা করার জন্য ড্যানকে আমার বয়স ১৪ বছর বলি। এরপরই এটি আমার সঙ্গে ফ্লাটিং বন্ধ করে দেয়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই ধরনের সেবার জন্য দ্রুতই অর্থ খরচের প্রক্রিয়া যুক্ত করা হবে।

অনেক চীনা নারী এখন ড্যানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ছে। ১০ জুন পর্যন্ত ড্যান মুড হ্যাশট্যাগ সামাজিক যোগাযোগমাধ্য শাওংশুতে ৪ কোটি বার ব্যবহার করা হয়েছে।

এদিকে লিসার ভিডিও দেখার পর ২৪ বছর বয়সী মিনরুই শি ডেটিংয়ের জন্য ড্যান ব্যবহার শুরু করেছেন। চ্যাটজিপিটি চীনে ব্যবহার নিষিদ্ধ। তবে এক্ষেত্রে চীনা নারীরা এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রেমিকের সঙ্গে কথা বলার জন্য ভিপিএন ব্যবহার করছে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে