সরকারি কয়েকটি ওয়েবসাইট অনলাইন জুয়ার সঙ্গে যুক্ত: পলক

প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২৪; সময়: ১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ |
সরকারি কয়েকটি ওয়েবসাইট অনলাইন জুয়ার সঙ্গে যুক্ত: পলক

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : এ মুহূর্তে দেশে ৫৭৫টি বেটিং ওয়েবসাইট শনাক্ত করেছে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার (এনটিএমসি)। এর মধ্যে সরকারি কয়েকটি ওয়েবসাইট অনলাইন জুয়ার সাইটের সঙ্গে যুক্ত বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) তেজগাঁওয়ে টেলিযোগাযোগ অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে অনলাইন জুয়া, পর্নোগ্রাফি, অবৈধ ভিওআইপি বন্ধ নিয়ে আলোচনা সভায় এ কথা জানান তিনি।

চার-ছক্কার ধুন্ধুমার ব্যাটিং চলছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। বাইশ গজের জয়-পরাজয় নিয়ে সমর্থকদের মধ্যে চলে চুলচেরা বিশ্লেষণ। মাঠের উত্তেজনার ঢেউ লেগেছে অবৈধ অনলাইন বেটিংয়ে। বোলিংয়ের ধরন, উইকেট নাকি বাউন্ডারি প্রতিটি বল ধরে চলছে রমরমা জুয়া। সর্বস্ব হারিয়ে আত্মহত্যাসহ নানা অপরাধে জড়াচ্ছে অনেকেই।

এনটিএমসির বরাত দিয়ে প্রতিমন্ত্রী জানান, এ মুহূর্তে দেশে মোট ৫৭৫টি বেটিং সাইট সক্রিয় রয়েছে। এসব সাইটে যুক্ত ৫১ লাখের বেশি মানুষ। অনলাইন জুয়ার সঙ্গে যুক্ত সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ওয়েবসাইটও। এ ছাড়া এ ধরনের টেলিগ্রাম গ্রুপ ও চ্যানেল সংখ্যা আছে ৭২টি; এগুলোর সদস্যসংখ্যা ৪ লাখ ২৮ হাজার ১২৩। ফেসবুক গ্রুপ এবং পেজের সংখ্যা ৫০৩টি, যেখানে সদস্যসংখ্যা ৪৭ লাখ ৫ হাজার ৫২৩ জন। পাশাপাশি বেটিং অ্যাপের সংখ্যা আরও ৫০টি।

জুয়ার সাইটের মতো অনলাইনে সক্রিয় রয়েছে ১ হাজার ৬২৪টি পর্নো সাইট। এসব সাইটে তরুণ-তরুণীসহ যুক্ত আছে প্রায় ৩২ লাখ মানুষ। রাজধানীর অভিজাত এলাকায় যৌনকর্মী সরবরাহ করা হচ্ছে ‘নষ্ট মেয়ে’ কিংবা ‘পায়েল ভিডিও সার্ভিস’ নামের ১৯৩টি এস্কর্ট সার্ভিস পেজ ও অ্যাকাউন্ট থেকে। এসব বন্ধে টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এনটিএমসির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল জিয়াউল আহসান।

এ ব্যাপারে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, অনলাইন জুয়া ও পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করবে সরকার। এসব সাইট বন্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে ঘোষণা দেন তিনি।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে