রাসিক মেয়রকে জড়িয়ে সংবাদের প্রতিবাদ ও নিন্দা উলামা কল্যাণ পরিষদের

প্রকাশিত: জুন ১৬, ২০২৪; সময়: ১২:২৫ অপরাহ্ণ |
রাসিক মেয়রকে জড়িয়ে সংবাদের প্রতিবাদ ও নিন্দা উলামা কল্যাণ পরিষদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান (লিটন) ও তার পরিবারের সদস্যবৃন্দদের জড়িয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন জানিয়েছে বিবৃতি দিয়েছে উলামা কল্যাণ পরিষদ রাজশাহী।

শনিবার উলামা কল্যাণ পরিষদ, রাজশাহীর সভাপতি মাওলানা আব্দুল গণি ও সাধারণ সম্পাদক মুফতি ওমর ফারক স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এই প্রতিবাদ ও নিন্দা প্রকাশ করেন।

বিবৃতিতে উলামা কল্যাণ পরিষদ, রাজশাহীর নেতৃবৃন্দ বলেন, মেগা সিটি, গ্রীণ সিটি, এডুকেশন সিটি, নিরাপদ শহর, আধুনিক ও সুন্দর নগরী রাজশাহীর রূপকার ও কারিগর দীর্ঘ তিন মেয়াদ জুড়ে অক্লান্ত প্রচেষ্টা ও প্রশ্নাতীত সদিচ্ছার মাধ্যমে খুন, ডাকাতি, রাহাজানি, ছিনতাই ও চাঁদাবাজমুক্ত হিসেবে তিলে তিলে গড়ে তোলা এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে স্বীকৃতি লাভ করার পিছনে যার সবচেয়ে বড় অবদান তিনি হলেন একটি ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান যার দাদা একজন জমিদার এবং বাবা শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান হেনা জাতীয় চার নেতার অন্যতম।

বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এবং উলামা কল্যাণ পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান পৃষ্ঠপোষক এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান (লিটন)। অর্থের প্রাচুর্যতার লোভ যদি উনার থাকতোই তবে দাদা, বাবা, আর নিজেদর প্রজন্মে হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক বনে যেতে পারতেন। উনি অর্থের প্রাচুর্য গড়ার জন্য আসেননি বরং তিনি এখন পর্যন্ত রাজশাহী অঞ্চলের মানুষের ভাগ্য বদলের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।

যখন তিনি ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান, শিল্পকারখানা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির প্রাণপন চেষ্টা করে যাচ্ছেন ঠিক তখনই একশ্রেণির ষড়যন্ত্রকারী মহল বিভ্রান্তিকর তথ্য এবং অভিযোগ তুলে ধরে তার স্বচ্ছ রাজনৈতিক ইমেজকে অন্যায়ভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্যই তার ও তার পরিবারের সদস্যদের ব্যাপারে গত ১১, ১২, ও ১৩ জুন/২৪ তারিখে বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেকট্রনিক মিড়িয়ায় এইসব অপতথ্য, মিথ্যা অভিযোগ প্রচার করেছে। আমরা রাজশাহীর সর্বস্তরের উলামা কেরাম (ইমাম, মুয়াজ্জিন, খতিব, মুহাদ্দীস, মুফাসির, ফকীহগণ) এই প্রকাশিত মিথ্যা বানোয়াট রিপোর্টের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি এবং মেয়র মহোদয়ের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি দাবী করছি। পাশাপাশি সত্যনিষ্ঠ তথ্য সংগ্রহ ও প্রকাশ করার জন্য সাংবাদিক ভাইদেরকে অনুরোধ করছি।

 

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে