নন্দীগ্রামে বোনের মৃত্যুর ৮ ঘন্টা পরে মারা গেল ছোট ভাই

প্রকাশিত: জুন ৩০, ২০২৪; সময়: ১:১৮ অপরাহ্ণ |
নন্দীগ্রামে বোনের মৃত্যুর ৮ ঘন্টা পরে মারা গেল ছোট ভাই

নিজস্ব প্রতিবেদক, নন্দীগ্রাম : বগুড়ার নন্দীগ্রামে ২ অটোরিকশার মধ্যে সংঘর্ষে জুথী খাতুন নামের এক প্রসুতির মৃত্যুর ৮ ঘন্টা পর মারা গেল দুর্ঘটনায় আহত ছোট ভাই জিহাদ হোসেন (১৭)। শনিবার রাত ১ টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

মৃত জুথী খাতুন ও জিহাদ হোসেন উপজেলার শিমলা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে-মেয়ে। কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ভাই বোনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিহত জুথী খাতুন ও জিহাদ হোসেনের চাচা বেলাল উদ্দিন বলেন, ৪ দিন আগে ভাতিজি জুথী খাতুন নন্দীগ্রামের হেলথ কেয়ার ক্লিনিকে কন্যা সন্তান প্রসব করে। শনিবার বিকেলে ক্লিনিক থেকে জুথী খাতুন সন্তানসহ তার মা জেসমিন (৪৫) ও ছোট ভাই জিহাদকে (১৭) নিয়ে সিএনজি চালিত অটোরিকশা নিয়ে নন্দীগ্রাম থেকে গ্রামের বাড়ি ফিরছিল।

পথিমধ্যে দলগাছা এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে একটি ব্যাটারি চালিত অটোরিকশার সাথে সিএনজি চালিত অটোরিকশার সংঘর্ষ হয়। এতে দুইটি অটোরিকশাই উল্টে যায়। আর আমার ভাবি, ভাতিজি ও ভাতিজা গুরুত্বর আহত হয়। আর ভাতিজির তিন দিনের মেয়ে অক্ষত ছিলো।

তিনি আরও জানান, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদেরকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জুথী খাতুনকে মৃত ঘোষনা করেন। আর ভাতিজা জিহাদ হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১ টার দিকে মারা যায়।

আমার ভাবি ও নাতনী ভালো আছে। আমার ভাতিজি জুথী খাতুনের বেশকিছু দিন আগে শেরপুর উপজেলার বংশার গ্রামে বিয়ে হয়েছিল। বাচ্চা প্রসবের জন্য এখানে আনা হয়েছিল।

নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম কামাল বলেন, চার দিনের সন্তান রেখে সড়ক দুর্ঘটনায় কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে ভাই বোনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে