পোরশায় একাধীক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি

প্রকাশিত: জুলাই ১, ২০২৪; সময়: ১২:৫১ অপরাহ্ণ |
পোরশায় একাধীক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক, পোরশা : নওগাঁর পোরশায় গত দুই মাসে একাধীক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি সংঘঠিত হয়েছে। সংবদ্ধ চোরেরা উপজেলার কাতিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মিছিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শ্রীকৃষ্ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড়রনাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কালাইবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয সহ বিভিন্ন বিদ্যালয় থেকে অফিসের তালা ভেঙ্গে প্রজেক্টর, ল্যাপটপ, বিদ্যালয় সংলগ্ন বিদ্যুৎ এর ট্রান্সফরমার, আর্থিং তারের ঢাকনা, বিদ্যুৎ এর তার, বিদ্যালয়ের ফুল বাগানের লাগানো লোহার তৈরী গেট সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ উপকরণ চুরি করে নিয়ে গেছে।

এতে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষকগণ অসহায়ত্বের মধ্যে পড়েছেন। প্রতিনিয়ত চুরি সংঘটিত হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন তারা। বিভিন্ন সময় থানায় অভিযোগ করেও কাজ হচ্ছেনা বলছেন তারা।

মিছিরা এবং কাতিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রাব্বানী ও আশিক জানান, তাদের বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিদ্যালয় থেকে সংবদ্ধ চোরের দল অফিসের তালা ভেঙ্গে বিভিন্ন কাগজপত্র তছনছ করে মুল্যবান উপকরণ সহ জিনিসপত্র চুরি করে নিয়ে গেছে। এতে তারা আতংকেই আছেন বলে জানান। তবে এবিষয়ে তারা থানায় অভিযোগ করেছেন কিন্তু কি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে জানেননা।

এর আগে উপজেলা প্রশাসন সংলগ্ন বিদ্যালয় নিতপুর দিয়াড়াপাড়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ও চুরি হয়েছিল বলে তারা জানান।

উপজেলা ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা একেএম ওলিউল ইসলাম জানান, বিগত দুই মাস থেকে এ উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মুল্যবান জিনিসপত্র চোরেরা চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে। কোন ভাবেই চুরি রোধ করা যাচ্ছেনা। বিদ্যালয়গুলিতে নৈশ প্রহরী থাকলে হয়তো চুরি রোধ করা সম্ভব হতো। তবে তিনি সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কতৃপক্ষকে এ বিষয়ে লিখবেন এবং যথায়থ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অনুরোধ করবেন।

অপরদিকে থানা অফিসার ইনচার্জ আতিয়ার রহমান অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে জানান, তারা কিছু বিদ্যালয় থেকে অভিযোগ পেয়ে মালামাল উদ্ধার করে দিয়েছেন। এব্যপারে তারা তৎপর রয়েছেন। তবে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ যাতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলিতে নৈশ প্রহরী নিয়োগ দেন এবিষয়ে তারা সুপারিশ করছেন। নৈশ প্রহরী থাকলে চুরি রোধ সম্ভব হবে বলে তিনি মনে করছেন।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে