বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেননি : খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: জুলাই ৮, ২০২৪; সময়: ৩:৩৯ অপরাহ্ণ |
বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেননি : খাদ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, পোরশা : খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ট্রানজিট এক দেশের সাথে অন্য দেশের যোগাযোগ বাড়ায়। বিশ্বায়নের যুগে একা থাকলে দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে না। তিনি ভারতের সাথে বাংলাদেশের চুক্তি প্রসঙ্গে বলেন, শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়নের জন্য কাজ করেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা গোলামী চুক্তি করেননি।

বিএনপি মিথ্যা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করে। সোমবার দুপুরে পোরশা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ‘কৃষি প্রযুক্তি মেলা-২০২৪’ এর উদ্বোধন এবং অগ্নিকান্ড ও বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের মাঝে ঢেউটিন ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তির চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যদান কালে এসব কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ। এই ক্ষুধাকে জয় করতে কৃষিতে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে হবে। ধান রোপন ও ধান কাটা মাড়াই প্রযুক্তির ব্যবহার করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশ ধান কাটার সময় শ্রমিক সংকট হয়। হাজার বারোশো টাকা দিলেও শ্রমিক পাওয়া যায়না। মেশিনের মাধ্যমে সহজেই অল্প সময়ে অধিক জমির ফসল কেটে তোলা সম্ভব।

তবে কৃষক ধীরে ধীরে প্রযুক্তিগত সুবিধা নিতে শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকের কাছে কৃষি প্রযুক্তির যন্ত্রাদী পৌঁছে দিচ্ছে কোনটা বিনামূল্যে কোনটা ভর্তূকি মূল্যে।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন দেশের কোথাও যেন এক ইঞ্চি জমিও পতিত না থাকে। সে কারনে চাষাবাদ বাড়াতে হবে। ঘরের আসে পাশের জমিতেও মরিচ-পেঁয়াজ এর চাষ করলে পরিবারের খরচ কমবে। দেশের সামগ্রিক উৎপাদনে এর গুরুত্ব আছে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষা উপবৃত্তি দিয়ে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ছেলে মেয়েদের পড়ালেখায় উৎসাহিত করছেন। তিনি পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে একই প্লাটফর্মে নিয়ে আসতে চান। উন্নয়ন করতে চান সকলের। উন্নয়ন থেকে কেউ যেন বঞ্চিত না হয় সেটা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নিয়েছেন তিনি।

বর্তমান সরকার কৃষক বান্ধব উল্লেখ করে সাধন মজুমদার বলেন, চলমান বোরো সংগ্রহে সরকার চালের দাম এক টাকা বাড়িয়েছে। অপরদিকে ধানের দাম বাড়িয়েছে দুই টাকা। ভোক্তা ও কৃষকের স্বার্থ বিবেচনায় নিয়েই সরকার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

পোরশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ আদনানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান খোকন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আতিয়ার রহমান।

অন্যান্যের মধ্যে প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাহমুদুল হক টিটো, মৎস কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক, প্রেস ক্লাব সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব সহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে তিনি রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কতৃক আয়োজিত তিনদিন ব্যাপি কৃষি প্রযুক্তি মেলা ২০২৪ এর উদ্বোধন ও বর্নাঢ্য এক র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন এবং মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন।

এছাড়াও বিকালে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার নিতপুর সরকারি স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট (অনুর্দ্ধ-১৭) এর ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথি হিসাবে যোগদেন এবং খেলা শেষে পুরুস্কার বিতরণ করেন।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে