বাংলা ব্লকেড কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে ইবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশিত: জুলাই ৮, ২০২৪; সময়: ৮:২৬ অপরাহ্ণ |
বাংলা ব্লকেড কর্মসূচির দ্বিতীয় দিনে ইবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ইবি : সরকারি চাকরিতে ২০১৮ সালের পরিপত্র বাতিল করে কোটা পদ্ধতি পুনর্বহাল সংক্রান্ত উচ্চ আদালতের রায়ের প্রতিবাদ জানিয়ে এবং সকল চাকরিতে বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে মেধা ভিত্তিক নিয়োগের দাবিতে বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের ব্যানারে কেন্দ্র কর্তৃক ঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে দ্বিতীয়দিনের মতো কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (৮ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বটতলায় একত্রিত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মূল ফটকের সামনে অবস্থান নেন। এরপর বিকাল ৪ টা থেকে মহাসড়ক অবরোধ করে সমাবেশ, পথনাটক প্রদর্শনসহ ক্রিকেট, ফুটবল খেলার মাধ্যমে নিজেদের আন্দোলনে সম্পৃক্ত রাখেন তারা। ফলে দীর্ঘ প্রায় ২ ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের এক দফা দাবি হলো- সব গ্রেডে সব ধরণের অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে সংবিধানে উল্লিখিত অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য কোটাকে ন্যূনতম পর্যায়ে এনে সংসদে আইন পাস করে কোটা পদ্ধতিকে সংশোধন করতে হবে।

আন্দোলনে ইবি শিক্ষার্থী নাহিদ হাসান বলেন, আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের সবসময় সম্মান প্রদর্শন করি। দেশের যেকোনো সেবা নিতে আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রথমে জায়গা দেই। আমরা বাংলাদেশে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান রেখেই এই আন্দোলন করে যাচ্ছি। আমরা চাই অনগ্রসর যারা আছে তাদের কোটা রেখে মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করা হোক। চাকরির ক্ষেত্রে আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীরা কখনোই ছাড় দিবো না। আমাদের এই দাবিকে বাস্তবায়ন করতে হবে এবং কোটা ব্যবস্থাকে সংস্কার করতে হবে।

এছাড়াও ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থী ইতি বলেন, আমরা ইতিমধ্যে বিভিন্ন ইস্যু দিয়ে ইস্যু ঢাকার চেষ্টা করতে দেখছি। বিভিন্নভাবে কোটা আন্দোলনকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে আমরা আমাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথ ছাড়বো না। দরকার হয় রাজপথে বসে পড়াশোনা করবো কিন্তু রাজপথ ছেড়ে যাবো না। আমাদের এক দফা এক দাবি, ‘কোটা নট কাম ব্যাক’।

 

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে