ভারী বৃষ্টিতে মুম্বাইতে রেড অ্যালার্ট, বিপর্যস্ত জীবনযাত্রা

প্রকাশিত: জুলাই ৯, ২০২৪; সময়: ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ |
ভারী বৃষ্টিতে মুম্বাইতে রেড অ্যালার্ট, বিপর্যস্ত জীবনযাত্রা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ভারী বর্ষণে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য মহারাষ্ট্রের মুম্বাই। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে সেখানে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। এছাড়া মঙ্গলবার (৯ জুলাই) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার কথাও জানানো হয়েছে।

এমনকি একান্ত প্রয়োজন ছাড়া বাসিন্দাদের বাড়ির বাইরে না বের হওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। বৃষ্টির মধ্যে সমুদ্র সৈকতের কাছাকাছি না যেতে দেওয়া হয়েছে কঠোর নির্দেশ।

মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুম্বাই এবং সংলগ্ন অঞ্চলে অবিরাম বর্ষণের কারণে শহরতলির ট্রেন পরিষেবা এবং ফ্লাইট চলাচল ব্যাপকভাবে ব্যাহত হয়েছে। এছাড়া ভারতের এই মহানগরে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রাও বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

শর্ট সার্কিটের কারণে আগুনে দগ্ধ হয়ে বয়স্ক এক নারী মারা গেছেন। শহরের লোকেরাও জলাবদ্ধ রাস্তায় চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছেন এবং এসব কিছুর ভেতরে সোমবার শহরটিতে ট্রাফিক বিশৃঙ্খলা ধারণ করেছিল চরম আকার।

মুম্বাইয়ের কিছু এলাকায় সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত মাত্র ছয় ঘণ্টায় ৩০০ মিলিমিটারের বেশি বৃষ্টি হয়েছে, যার ফলে শহরটির বহু রাস্তা এবং নিচু এলাকা প্লাবিত হয়েছে।

এর পাশাপাশি শহরজুড়ে সারাদিন ধরে প্রবল বর্ষণ বাসিন্দাদের দুর্ভোগ আরও বাড়িয়ে দিয়েছে এবং স্কুলগুলোও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতের আবহাওয়া বিভাগ (আইএমডি) মঙ্গলবারের জন্য মুম্বাইয়ে ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করেছে, ভারী বর্ষণ বন্ধের কোনও পূর্বাভাস নেই। ব্যাহত হয়েছে রেল ও বিমান পরিষেবা। মুম্বাইয়ের পাশাপাশি থানে, পালঘর এবং কোঙ্কন উপকূল এলাকাতে সতর্কতা জারি হয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে যাতে জরুরি পরিষেবা বন্ধ না হয়ে যায়, সে দিকে বিশেষ ভাবে নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। বহু জায়গায় রেললাইন পানিতে ডুবে থাকায় বাতিল হয়েছে একাধিক ট্রেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে নেমেছে রেল, এনডিআরএফ এবং পৌরকর্মীরা।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী একনাথ শিন্ডে জানিয়েছেন, জমে থাকা পানি সরানোর জন্য বৃহন্মুম্বই পৌর কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে ৪৬১টি মোটর পাম্প এবং রেলের পক্ষ থেকে ২০০টি পাম্প চালানো হচ্ছে। মধ্য ও হারবার লাইনে আপাতত ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, পরিস্থিতি মোকাবিলায় শহরের বিভিন্ন জায়গায় সাতটি পাম্পিং স্টেশন তৈরি করা হচ্ছে। এছাড়াও, সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা করা হয়েছে। সতর্কতা জারি করা হয়েছে উপকূলবর্তী এলাকায়। সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং বিমান বাহিনীকে।

এনডিটিভি বলছে, মঙ্গলবার (৯ জুলাই) মুম্বাই, রত্নাগিরি, রায়গড়, সাতারা, পুনে এবং সিন্ধুদুর্গ জেলার জন্য রেড অ্যালার্ট এবং থানে ও পালঘরের জন্য অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করেছে আবহাওয়া অফিস।

এছাড়া মুম্বাই, থানে, নভি মুম্বাই, পানভেল, পুনে এবং রত্নাগিরি-সিন্ধুদুর্গের গ্রামীণ অংশের স্কুল এবং জুনিয়র কলেজগুলো মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টিপাতের সতর্কতার কারণে বন্ধ থাকবে বলেও একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে