মেসির রেকর্ড ভাঙলেন হামেস রদ্রিগেজ

প্রকাশিত: জুলাই ১১, ২০২৪; সময়: ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ |
খবর > খেলা
মেসির রেকর্ড ভাঙলেন হামেস রদ্রিগেজ

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ২০১৪ বিশ্বকাপ। কলম্বিয়ান ফুটবলে তখন সবচেয়ে বড় তারকা রাদামেল ফ্যালকাও। বিশ্বকাপে কলম্বিয়া যতটা স্বপ্ন দেখেছিল সেটা ওই ফ্যালকাওকে কেন্দ্র করেই। কিন্তু ব্রাজিলের মাটিতে আলো কেড়ে নিলেন অন্য একজন। ১০ নম্বর জার্সিতে মাঝমাঠে খেললেন দুর্দান্ত ফুটবল। নাম তার হামেস রদ্রিগেজ। খুব আহামরি কোনো ক্লাবেও ছিলেন না।

ফ্রেঞ্চ লিগের ক্লাব মোনাকোতে খেলা এই তারকা রাতারাতি সুপারস্টার বনে যান ওই আসরে। জাপানের বিপক্ষে তার গোল হয় সেই বিশ্বকাপের সেরা গোল। কোয়ার্টারে বিদায় নিলেও প্রতিপক্ষ ব্রাজিলের ফুটবলার আর সমর্থকদের পুরো ভালোবাসাও পেয়েছিলেন। ছিলেন সর্বোচ্চ গোলদাতা। বিশ্বকাপের পর রীতিমত বড় অঙ্কের ট্রান্সফার ফিতে তাকে দলে টেনে নেয় স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ।

সেই পুরাতন হামেস রদ্রিগেজকে এবারের কোপায় দেখা গেল আরও একবার। ২৮ ম্যাচ অপরাজিত কলম্বিয়া। নেস্টর লরেঞ্জো গড়ে তুলেছেন দুর্ধর্ষ একটা দল। ভয়হীন ফুটবল উপহার দিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে হারিয়েছে ব্রাজিলকে। উরুগুয়েকে থামিয়ে দিয়ে গিয়েছে কোপা আমেরিকার ফাইনালে।

আর এই দলের মধ্যমণি হয়ে আছেন হামেস রদ্রিগেজ। দলকে খেলাচ্ছেন পাপেট মাস্টারের মতো করে। ছন্দের তুঙ্গে থাকা এই মিডফিল্ডার এবারের আসরে ভেঙ্গেছেন লিওনেল মেসির রেকর্ডও। এক কোপা আমেরিকাতে সর্বোচ্চ ৬ গোলের অ্যাসিস্ট করেছেন কলম্বিয়ান এই তারকা। এর আগে এক আসরে সর্বোচ্চ ৫ অ্যাসিস্ট করেছিলেন লিওনেল মেসি।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে জোড়া অ্যাসিস্ট ছিল তার। পরের ম্যাচে কোস্টারিকার বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয়ের দিনে করেছেন ১ অ্যাসিস্ট। ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচে গোল বা অ্যাসিস্ট না পেলেও প্রতিপক্ষ শিবিরে ভয় ধরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

পানামার বিপক্ষে ৫-০ গোলে জয়ের ম্যাচে হামেস করেছেন দুই অ্যাসিস্ট। পেয়েছেন এক গোল। এরপর সেমিফাইনালে উরুগুয়ের বিপক্ষে কলম্বিয়ার একমাত্র গোলেও ছিলেন তিনিই। কর্ণার থেকে বল ফেলেছিলেন দূরের পোস্টে। জেফারসন লারমা মাথা ছুঁইয়ে এনে দেন গোল।

তাতেই মেসির ৫ অ্যাসিস্টের রেকর্ড ভেঙে এক কোপা আসরে ৬ অ্যাসিস্ট করেছেন কলম্বিয়ান ফুটবলের বড় এই তারকা। এখন পর্যন্ত কোপা আমেরিকায় সরাসরি অবদান রেখেছেন ৭ গোলে। তর্কাতীতভাবেই এবারের কোপায় সেরা পারফর্মার ৩২ বছরের এই তারকা।

যদিও বছরখানেক আগেও হামেসের গল্পটা ছিল না এমন। ২০১৭ সালের পর থেকেই যেন পতন শুরু হামেসের। বায়ার্ন মিউনিখে ধারে পাঠানো হলো। শুরু হলো ভবঘুরে এক ক্যারিয়ার। ফুটবল খেলতে ইংল্যান্ডের মাঝারি সারির ক্লাব এভারটনে গিয়েছেন। সেখান থেকে খেলেছেন কাতারের লিগে। বর্তমানে খেলছেন ব্রাজিলিনা লিগের ক্লাব সাও পাওলোতে।

যদিও কলম্বিয়ান কোচের আস্থার পুরোটা জুড়েই আছেন হামেস রদ্রিগেজ। দলকেও টেনে তুলেছেন ফাইনালে। ২৩ বছর পর কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়ের ক্ষেত্রে বুড়ো হামেসই কলম্বিয়ার বাজির ঘোড়া।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে