আবেদ আলী কোনো ষড়যন্ত্রের হাতিয়ার কি না, সন্দেহ মন্ত্রীর

প্রকাশিত: জুলাই ১১, ২০২৪; সময়: ৩:১১ অপরাহ্ণ |
আবেদ আলী কোনো ষড়যন্ত্রের হাতিয়ার কি না, সন্দেহ মন্ত্রীর

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : জনপ্রশাসনমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী সত্য বলছেন কি না তা প্রমাণ হতে হবে। আবেদ আলী কোনো রাজনৈতিক দলের ষড়যন্ত্রের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করতে পারেন বলেও নিজের সন্দেহের কথা জানান মন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সচিবালয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পিএসসির প্রশ্নফাঁস নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসনমন্ত্রী বলেন, পিএসসি সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। তারা নিজেদের চিন্তাভাবনা থেকে সিদ্ধান্ত নেবে। বিষয়গুলো প্রমাণিত হতে হবে, সেটির জন্যও চেষ্টা চলছে। এখানে কোনো ত্রুটি নেই, খুবই শক্তভাবে সরকার দেখছে। সিআইডি কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টিতে মনোযোগ দিয়েছে।

তিনি বলেন, যে প্রক্রিয়ায় প্রশ্ন বাছাই হয়, সেগুলো নিয়ে কথা হয়েছে। তার মধ্যে কোনো ফাঁকফোকর আছে কি না; যার কারণে এরা সুযোগ নিয়েছেন, সেটাও দেখার বিষয়…। এগুলো নিয়ে সরকারের পক্ষ থেকে জোর প্রচেষ্টা চলবে।

যারা প্রশ্নফাঁসের মাধ্যমে নিয়োগ পেয়েছেন, আবেদ আলী যদি সুনর্দিষ্টভাবে তাদের নাম বলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় তাহলে কী করবে? এ প্রশ্নের জবাবে ফরহাদ হোসেন বলেন, তাহলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আইন অনুসারে ব্যবস্থা নেবে। চাকরিতে যারা নিযুক্ত হবেন, সেক্ষেত্রে কিছু বিষয় রয়েছে। যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করেই চাকরিতে তাদের আসতে হবে। পিএসসিরও কিছু নিয়মকানুন রয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক অনুসন্ধান চলছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন দুর্নীতির কারণে বেশ কিছু মানুষ আমাদের দৃষ্টিতে এসেছে। আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

চাকরিবিধি অনুসারে ব্যবস্থা নেবেন, সেটি কীভাবে হবে? এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আদৌ অভিযোগ সঠিক কি না… আসলে কী হচ্ছে… একজন গাড়িচালক, দেখলাম যিনি অন্য একটি দলের স্লোগান দিয়েছেন।

তিনি সত্যি না মিথ্যা বলেছেন তার প্রমাণ হতে হবে। অনেকগুলো বিষয় এখানে আছে। সরকারের ভাবমর্যাদা নষ্ট করার জন্য অনেক আগেই তার কাজের কারণে চাকরিচ্যুত হয়েছিলেন। এখন আবার তাকে দেখছি, সেই সময় তিনি চাকরি করতেন কি না, জানি না।

জনপ্রশাসন মন্ত্রী বলেন, একটি দলের হয়ে, যারা সরকার পতনের আন্দোলন করে, সরকারের উন্নয়ন বাধা দিতে চায়, তাদের হয়ে তিনি স্লোগান দিচ্ছেন, সেটি একটি বিষয়।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে