নিয়ামতপুরে সমাজসেবা কর্মকর্তা নেই, সেবা প্রার্থীদের ভোগান্তি

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৫, ২০২৩; সময়: ৩:৩০ অপরাহ্ণ |
নিয়ামতপুরে সমাজসেবা কর্মকর্তা নেই, সেবা প্রার্থীদের ভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক, নিয়ামতপুর : নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার পদটি শূন্য। এ কারণে ব্যাহত হচ্ছে কার্যালয়ের দাপ্তরিক কাজসহ নানা কার্যক্রম।

নিয়ামতপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০২৩ সালের ২৩ মে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আছয়াদুল্লাহ নড়াইল শিশু পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে বদলি হয়ে যাওয়ায় পদটি শূন্য হয়।

এ পদে নওগাঁ সদর উপজেলার সমাজসেবা কর্মকর্তা সাইদুর রহমানকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হলেও তিনি নিয়মিত নিয়ামতপুর কার্যালয়ে আসতে পারছেন না। তিনি নওগাঁ সদর উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় ও নওগাঁ সরকারি শিশু পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের বালিকা বিভাগে দায়িত্বে আছেন।

সূত্রে আরও জানা যায়, নিয়ামতপুর উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের অধীনে ৬ জন ইউনিয়ন সমাজকর্মী থাকার কথা। এর মধ্যে আছেন ১ জন কর্মী।

তাছাড়া সহকারী কর্মকর্তার পদটি গত ২৫ মার্চ থেকে শূন্য। সেপ্টেম্বর মাসের ১০ তারিখের মধ্যে প্রতিবন্ধীদের অনলাইন ভাতার আবেদন সম্পূর্ণ করতে হবে। সমাজ সেবা কর্মকর্তা না থাকা ব্যাহত হচ্ছে সকল কার্যক্রম।

উপজেলার ভিমপুর এলাকার বাসিন্দা সাবিত্রী বলেন, তার আড়াই বছর বয়সের মেয়ে জন্ম থেকে প্রতিবন্ধী। কয়েক মাস আগে প্রতিবন্ধী ভাতার জন্য আবেদন করা হয়েছে। কিন্তু সমাজসেবা কর্মকর্তার কার্যালয়ের লোকজন জানিয়েছেন, কর্মকর্তা না থাকার কারণে তালিকাভুক্ত হতে দেরি হচ্ছে।

নিয়ামতপুর সমাজসেবা কার্যালয়ের ফিল্ড সুপারভাইজার খাইরুল ইসলাম বলেন, সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা এবং দারিদ্র্য বিমোচন কর্মসূচির আওতায় বিভিন্ন ক্ষুদ্র ঋণ প্রকল্প পরিচালনা করাসহ ৫৪টি সেবামূলক খাতে উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয় কাজ করে থাকে।

কিন্তু সমাজসেবা কর্মকর্তার পদটি শূন্য থাকায় দপ্তরের বিভিন্ন কাগজপত্র যথাসময়ে সই করানো সম্ভব হয় না। এতে কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবেই ব্যাহত হচ্ছে।

জানতে চাইলে উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা সাইদুর রহমান বলেন, আমি নওগাঁ সদর উপজেলায় সমাজসেবা কার্যালয়ে কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছি।

এছাড়াও অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে নওগাঁ সরকারি শিশু পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের বালিকা বিভাগ ও নিয়ামতপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। চেষ্টা করছি সব দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালন করতে। কিন্তু সদর উপজেলা কার্যালয়ে কাজকর্ম বেশি থাকায় নিয়ামতপুর উপজেলা কার্যালয়ে নিয়মিত যেতে পারি না।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইমতিয়াজ মোরশেদ বলেন, পূর্বের সমাজসেবা কর্মকর্তা বদলীর পর ঐ পদে এখনও কোন কর্মকর্তা নিযুক্ত করা হয়নি। বর্তমানে ঐ দপ্তরে অতিরিক্ত দায়িত্বে রয়েছেন একজন। এতে কাজকর্ম স্বাভাবিকভাবে সম্পূর্ণ হচ্ছে না। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে