গুরুদাসপুরে স্কুলছাত্রীকে ধ’র্ষণের অভিযোগে রেস্টুরেন্ট মালিক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২৩; সময়: ১:২৭ অপরাহ্ণ |
গুরুদাসপুরে স্কুলছাত্রীকে ধ’র্ষণের অভিযোগে রেস্টুরেন্ট মালিক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, গুরুদাসপুর : নাটোরের গুরুদাসপুরে ১০ম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে সাইফুল ইসলাম (৪৫) নামে এক রেস্টুরেন্ট মালিককে গ্রেপ্তার করেছে গুরুদাসপুর থানা পুলিশ।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) গুরুদাসপুর পৌর শহরের চাঁচকৈড় নতুন গরুহাটা শ্রমিক অফিসের দ্বিতীয় তলায় ভাড়া বাসা থেকে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সাইফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রেস্টুরেন্ট মালিক সাইফুল ইসলাম গুরুদাসপুর পৌর সভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের চাঁচকৈড় কাচারী পাড়া মহল্লার মৃত্য জহির উদ্দিন মোল্লার ছেলে। এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রীর খালু মনিরুজ্জান বাদী হয়ে গুরুদাসপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলার এজাহার দায়ের করেছেন।

মামলার নথি ও থানা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষক সাইফুল ইসলাম তার কুটুমবাড়ী নামক রেস্টুরেন্টে খেতে আসা ওই স্কুল ছাত্রীর সাথে কৌশলে মোবাইল ফোন কিনে দিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার শ্রমিক অফিসের ২য় তলায় তার ভাড়া বাসায় ওই স্কুল ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

সর্বশেষ রোববার ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে ওই স্কুল ছাত্রীকে মোবাইল ফোনে বিয়ের কথা বলে ওই ভাড়া বাসায় ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক আবারও ধর্ষণ করতে থাকেন তখন ওই স্কুলছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয় শাকিল প্রামানিক, অন্তর হোসেন ও নাহিদসহ এলাকাবাসী ধর্ষক সাইফুল ইসলামকে ধরে গণপিটনী দিয়ে গুরুদাসপুর থানা পুলিশের হাতে তুলে দেন।

গুরুদাসপুর পৌর সভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাশিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আপত্তিকর অবস্থায় এলাকাবাসী সাইফুল ইসলামকে ধরে রেখে তাকে ঘটনাটি খুলে বলেন। তখন তিনি গুরুদাসপুর থানা পুলিশে খবর দিলে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোনোয়ারুজ্জামান বলেন, স্কুলছাত্রীর খালু মনিরুজ্জামান বাদী হয়ে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে