ব্যাটারিচালিত রিকশায় ডিজিটাল চাঁদাবাজি

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৪; সময়: ২:০০ অপরাহ্ণ |
ব্যাটারিচালিত রিকশায় ডিজিটাল চাঁদাবাজি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ডিজিটাল পদ্ধতিতে চাঁদাবাজি। শুনতে অবাক লাগলেও নিষিদ্ধ ব্যাটারি চালিত রিকশায় বারকোড বসিয়ে চাঁদাবাজি চলে মিরপুরের পল্লবী ও কালশীতে। মাসে দুই কোটি আর বছরে ২৪ কোটি টাকার চাঁদা তুলছে এই সিন্ডিকেট। অভিযোগ আছে এই টাকার ভাগ যায় প্রশাসন থেকে রাজনৈতিক নেতার পকেটেও। সম্প্রতি চাঁদা তুলতে বাঁধা দেয়ায় কথিত যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে হামলায় আহত হয় সাতজন।

নিষিদ্ধ ব্যাটারি চালিত রিকশার সিটের নিচে বসানো হয়েছে বারকোট। মুঠোফোনে স্ক্যান করলেই বেরিয়ে আসে তারিখসহ বেশ কিছু নির্দেশনা। মাসিক ১৮শ’ টাকা চাঁদা দিলেই মেলে এই বারকোট। মিরপুরের পল্লবী ও কালশীর দশ হাজার রিকশা থেকে মাসে ওঠে দুই কোটি টাকা, বছরে ২৪ কোটি।

জাতীয় নির্বাচনের আগে বছর খানেক এই চাঁদাবাজি বন্ধ থাকলেও নির্বাচনের পর এই চাঁদার জন্য জোর তৎপরতা শুরু হয়েছে। কথিত যুবলীগ নেতা আড্ডুর বিরুদ্ধে এই চাঁদা তোলার অভিযোগ।

রিকশা মালিকদের অভিযোগ, রাতের বিভিন্ন সময় আড্ডু ও তার দলবল বিভিন্ন রিকশা গ্যারেজে গিয়ে গত একমাস ধরে হুমকি দিচ্ছে চাঁদার জন্য। সিসিটিভিতে আড্ডুসহ তার দলবলকে বিভিন্ন সময় গ্যারেজে যেতেও দেখা যায়। চালক ও মালিকরা বলছেন, চাঁদা না দেয়ায় ৭ জনকে পিটিয়ে গুরুতর যখম করা হয়েছে। এর মধ্যে তিনজন পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি।

গ্যারেজ মালিকরা বলছেন, রাজধানীতে প্রতিমাসে কোটি কোটি টাকার চাঁদাবাজি চলছে ব্যাটারিচালিত রিকশার টোকেনের নামে।

সম্প্রতি রিকশা চালক-মালিকদের ওপর আড্ডু বাহিনীর হামলার সময় পল্লবী থাকার এসআই মোবারক হোসেনও আহত হয়। পুলিশ বলছে, এখনো কেউ মামলা করেনি। অভিযুক্ত সহ পুরো পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে।

পল্লবী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপূর্ব হাসান বলেন, আমরা চেষ্টা করছি- যাতে অটো রিকশা থেকে কেউ চাঁদাবাজি করতে না পারে। এছাড়া আমরা কারো বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেলে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেবো।
অটো মালিক-বিআরটিএ আঁতাতে লোপাট ১১৩ কোটি টাকা!অটো মালিক-বিআরটিএ আঁতাতে লোপাট ১১৩ কোটি টাকা!

যুবলীগ নেতা হিসেবে পরিচয় দেয়া স্থানীয় সাংসদ সদস্যের লোক হিসেবে স্বীকৃত আড্ডু ক্যামেরার সামনে কোন কথা বলতে রাজি হয়নি। পুরো মিরপুর অঞ্চলে হাজার হাজার অবৈধ ব্যাটারি চালিত রিকশা অনিয়ন্ত্রিতভাবে বেড়েই চলছে, যারা ট্র্যাফিক আইন যেমন মানে না, তেমনি অনিয়ন্ত্রিত গতির কারণে প্রতিনিয়ত ঘটছে মারাত্মক সব দুর্ঘটনা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে