চারঘাটে নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের অঙ্গীকার করলেন প্রার্থীরা

প্রকাশিত: মে ১৪, ২০২৪; সময়: ৭:৫৩ অপরাহ্ণ |
চারঘাটে নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের অঙ্গীকার করলেন প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, চারঘাট (রাজশাহী) : রাজশাহীর চারঘাটে অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের লক্ষ্যে রাজনৈতিক দল ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা ব্যাতিক্রমী অঙ্গীকার গ্রহণ করেছেন। মঙ্গলবার (১৪ মে) সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে পিস ফ্যাসিলিটেঁর গ্রুপের (পিএফজি) উদ্যোগে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পিএফজি’র রাজশাহী জেলা সমন্বয়কারী সাইফুল ইসলাম বাদশার সভাপতিত্বে ও উপজেলা সমন্বয়কারী আবুল কালাম আজাদের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদা খানম এবংবিশেষ অতিথি চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এস এম সিদ্দিকুর রহমান।

সভায় ২ জন চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী, ৬ জন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ৬ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এবং উপজেলা আ’লীগ, বিএনপি ও জাতীয়পার্টি নেতারা তাঁদেও মতামত তুলে ধরেন। এসময় তাঁরা অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষ্যে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার অঙ্গীকার করেন।

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বিপ্লব বলেন, এবারের নির্বাচনে দলীয় কোনো প্রতীক না থাকলেও অনেক প্রার্থী দলীয় প্রভাববিস্তারের চেষ্টা করছেন। এজন্য সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হলে প্রশাসনকে নিরপেক্ষ ও শক্ত অবস্থানে থাকতে হবে।

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম বলেন, আমরা যারা প্রতিদ্বন্দীতা করছি সকলেই ভাই ভাই। কোনো সংঘাত কিংবা কোন্দল ঘাঁর মত অবস্থা নেই। জনগণ যে রায় দিবে তা আমি মাথা পেতে নেব এবং সকল প্রাথীকেই তা মেনে নেওয় াউচিত।

উপজেলা আ’লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বলেন, নির্বাচনে যারা অংশগ্রহণ করেছেন সকলেই চারঘাটের মাটির সন্তান। এজন্য নির্বাচন কেন্দ্র করে দলীয় কোন্দল কিংবা দলীয় শৃংখলা যেনো বিনষ্ট না হয় সেজন্য সক্রিয় থাকতে হবে।

চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, পুলিশ জনগণের সেবক। নির্বাচনে যেনো সংঘাত না হয় সে যেন পুলিশ সব সময়ই সজাগ রয়েছে। নির্বাচনী জনসভা করলে পুলিশকে ৪৮ ঘন্টা আগে জানাতে হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদা খানম বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রধানশর্ত হলো নির্বাচনী আইন মেনে চলা। প্রশাসন সকল প্রার্থীকে সমান সুযোগ দেবে। সকল প্রার্থীকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান তিনি।

গভায় আরো উপস্থিত ছিলেন দূর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ফজলুর রহমান, হিন্দু বোদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদেও সভাপতি ব্রজহরি দাস, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাম্মেল হক,চারঘাট প্রেসক্লাবের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাচ্চুসহ সাংবাদিকবৃন্দ।

সভার শেষে সকল প্রার্থী অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষ্যে নির্বাচনী আচরণবিধিসহ সকল প্রকার বিধিবিধান মেনে চলার অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করেন।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে