শিশু-কিশোরদের ক্ষতি করছে অ্যানার্জি ড্রিংক

প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২৪; সময়: ১২:২৪ অপরাহ্ণ |
শিশু-কিশোরদের ক্ষতি করছে অ্যানার্জি ড্রিংক

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সিগারেট ও মদ শিশু-কিশোরদের নাগালের বাইরে রাখতে জার্মানিতে অনেক বিধিনিয়ম রয়েছে৷ কিন্তু ক্ষতিকারক এনার্জি ড্রিংকসের ক্ষেত্রে তেমন উদ্যোগ নেই৷ ডাক্তার ও কর্মীরা মনে করছেন এনার্জি ড্রিংকসের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত৷ অনেক ইউটিউব ও ইন্টারনেট তারকার মিষ্টি পানীয় রঙিন, চকচকে ও নজর কাড়ার মতো৷ এমন আইস টি অথবা এনার্জি ড্রিংক শিশু-কিশোরদের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়৷ লুকা, হানেস ও ইয়ুস্টুসের মতো ফুটবল অনুরাগীদের বয়স ১৩ থেকে ১৪৷ এরাই এমন পানীয়ের ক্রেতা হিসেবে কোম্পানিগুলির কাছে আকর্ষণীয়৷ এনার্জি ড্রিংক অবশ্যই তাদের পরিচিত৷ কেউ মাঝেমধ্যে খায়, তবে বেশিরভাগ সময়ে গোপনে৷ কেউ বা একবার চেখে দেখেছে৷ কেউ কেউ কখনোসখনো একটি ক্যান কিনেছে৷ কিন্তু তাদের পরিচিত মহলে এবং ফুটবল টিমে বিষয়টি নাকি অন্যরকম।

১৩ বছর বয়সী হানেস মতে, অনেকে পানির বোতলে এনার্জি ড্রিংক ভরে নেয়, যাতে কোচ টের না পায়।

১৪ বছর বয়সী ইয়ুস্টুস জানালো, আমি দুই একজন বা আরো বেশি মানুষকে চিনি, যারা স্কুলের আগে রেডবুল বা অন্য কোনো পানীয় জোগাড় করে৷ কখনো স্কুলে, কখনো বা স্কুলের পর সেটা খেয়ে নেয়।

সুপারমার্কেট, পেট্রল পাম্প অথবা পাড়ার ছোট স্টলে এনার্জি ড্রিংকের বিশাল সম্ভার দেখা যায়৷ অনেক পরিমাণ চিনির পাশাপাশি সেই পানীয়ের মধ্যে টাউরিন নামের পদার্থ ও বিশাল মাত্রায় ক্যাফেইন থাকে৷ এমনকি শিশুরাও বিনা বাধায় সেই পানীয় কিনতে পারে৷ এক শিশুদের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ এমন অনেক শিশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছেন, যারা প্রতিদিন বেশ কয়েক লিটার এনার্জি ড্রিংক পান করে থাকে।

পেডিয়াট্রিক কার্ডিওলজিস্ট হিসেবে মার্টিন হুল্পকে-ভেটে বলেন, কয়েকটি ক্ষেত্রে রোগীরা বলে যে, তাদের খুব দ্রুত হৃদস্পন্দন হচ্ছে, যা তাদের খুবই অস্থির করে তুলছে৷ কয়েকজন রোগীর ক্ষেত্রে রক্তচাপ বাড়ার প্রমাণ পাওয়া যায়৷ যারা নিয়মিত ও বেশি পরিমাণে এই পানীয় গ্রহণ করে, তাদের ক্ষেত্রে আমরা আলট্রাসাউন্ড পরীক্ষায় কার্ডিয়াক পেশী প্রাচীর আরো পুরু হতে দেখি৷ সেটা খুবই উদ্বেগজনক।

এই বিশেষজ্ঞের মতে, খুব খারাপ অবস্থায় কার্ডিয়াক অ্যারিথমিয়াস দেখা দিতে পারে, যা রোগীর জীবন বিপন্ন করতে পারে৷ জার্মানির লোয়ার স্যাক্সনি রাজ্যের ভোক্তা সুরক্ষা দপ্তরের কর্মী ইরিস লাকুয়া বিভিন্ন স্কুলের ক্লাসে গিয়ে শিশুদের এনার্জি ড্রিংকসের ঝুঁকির কারণ ব্যাখ্যা করেন৷ এমন পানীয়ের উপকরণ সম্পর্কেও তিনি তথ্য দেন৷ তবে ক্যানের উপর সেই তালিকা পড়া প্রায়ই বেশ কঠিন।

লাকুয়া বলেন, সত্যি ভালো করে খুঁজতে হয়৷ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সতর্কতাবাণী থাকে, যে অনেক ক্যাফেইনের কারণে সেটি গর্ভবতী ও স্তন্যপান করানো নারী এবং শিশুদের জন্য উপযুক্ত নয়৷ ক্যানের উপর সেই বার্তা স্পষ্ট দেখা গেলে ভালো হতো।

একটি আধ লিটারের এনার্জি ড্রিংকের মধ্যে প্রায় ২০টি সুগার কিউবের সমান পরিমাণ এবং ১৬০ মিলিগ্রাম ক্যাফেইন থাকে৷ ৫০ কিলো ওজনের এক কিশোর এমন একটি ড্রিংক পান করলে তার বয়সের জন্য নির্ধারিত ক্যাফেইনের ঊর্ধ্বসীমা পেরিয়ে যায়৷ সে কারণে ডাক্তার ও ভোক্তা সুরক্ষা কর্মীরা শিশু ও কিশোরদের কাছে এমন পানীয় বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞার দাবি করছেন৷ কিন্তু সেই বিষয়ের ভারপ্রাপ্ত ফেডারেল মন্ত্রণালয়ের এই মুহূর্তে এমন কোনো পরিকল্পনা নেই৷ ফলে শিশু ও কিশোরদের কাছে এনার্জি ড্রিংকসের জনপ্রিয়তা আপাতত তুঙ্গেই থাকছে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে