রাজশাহীর বাজারে বেড়েছে সকল প্রকার মাছ ও মুরগির দাম

প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২৩; সময়: ১২:৩১ অপরাহ্ণ |
রাজশাহীর বাজারে বেড়েছে সকল প্রকার মাছ ও মুরগির দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক : সপ্তাহের ব্যবধানে রাজশাহীর বাজারে বেড়েছে মুরগি ও সকল প্রকার মাছের দাম। রাজশাহীর বাজারগুলোতে দেখা গেছে এ সপ্তাহে ২০ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা, গত সপ্তাহের চেয়ে ২০ টাকা বেড়ে সোনালী মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৯০ টাকা এবং কেজিতে ২০ টাকা বেড়ে দেশী মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৫৭০ টাকা।

মুরগি কিনতে আসা পূরবী জানান, কয়েকদিন পরে পনে হচ্ছে ব্রয়লার মুরগি ৫০০ টাকা কেজি কিনে খেতে হবে। যেভাবে প্রতিসপ্তাহে মুরগির দাম বাড়ছে মধ্যবিত্ত পরিবারে মানুষ সপ্তাহে কিছু না পারলেও মুরগিটা খায় কিন্তু এভাবে দাম বাড়তে থাকলে হয়তো মুরগি খাওয়া ছেড়ে দিতে হবে মনে হচ্ছে।

মুরগি বিক্রেতা জামান জানান, মুরগির আমদানি কম এ সপ্তাহে আর খামারিরা মুরগি দিচ্ছেনা তাই আমাদেরকে বেশি দামে কিনতে হয়েছে। আমদানি বেশি হলে আবার মুরগির দাম কমে যাবে ইনশাইল্লাহ।

এসপ্তাহে বাজার ঘুরে দেখা যায় সকল প্রকার মাছের দাম বেশি। নদী ও বিলের মাছ কেজিতে ১০০-১৫০ টাকা বেশি এবং কার্প জাতীয় যেসব মাছ রয়েছে সেগুলো কেজিতে ২০-৫০ টাকা পর্যন্ত বেশি।

মাছ কিনতে আসা সাজ্জাদ জানান, আমরা বাঙ্গালিরাযে মাছ প্রিয় এটার ফায়দা নিচ্ছে ব্যবসায়ীরা। কারণ প্রতি সপ্তাহে সকল প্রকার মাছের দাম কেজিতে যেভাবে বাড়ছে আর কিছুদিন পরে হয়তো আমাদেরকে মাছ খাওয়া ভুলে যেতে হবে। এতো দাম দিয়ে আমাদের মতো মধ্যবিত্ত মানুষ মাছ খেতে পারবেনা যেভাবে মাছের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে।

মাছ বিক্রেতা নজরুল জানান, এসপ্তাহে মাছের বাজারে পরিস্থিতি খুব খারাপ। আবহাওয়া খারাপ থাকার কারণে মাছ পাওয়া যাচ্ছেনা। আজ অল্প কিছু মাছ পেয়েছি তাও আবার আমাদেরকে আনেক বেশি দামে কিনে আনতে হয়েছে। আবহাওয়া এভাবে যতদিন খারাপ থাকবে মাছের দাম বেশি থাকবে। আজ বাজারে মাছ নাই বললেই চলে।

এছাড়া সপ্তাহের শেষ দিনে রাজশাহীর বাজারে সকলপ্রকার সবজি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় মুদিপণ্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে