হালাল প্রাণীর যে ৮ জিনিস খাওয়া জায়েজ নেই

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৯, ২০২৪; সময়: ২:৩৫ অপরাহ্ণ |
খবর > ধর্ম
হালাল প্রাণীর যে ৮ জিনিস খাওয়া জায়েজ নেই

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আল্লাহ রাব্বুল আলামিন বান্দাদের জন্য অসংখ্য অগণিত নিয়ামত সৃষ্টি করেছেন। তার মধ্যে হালাল প্রাণী সবচেয়ে বড় নিয়ামত। অনেক প্রাণী আল্লাহ রাব্বুল আলামিন বান্দার খাবারের জন্যই সৃষ্টি করেছেন। এগুলো হালাল করেছেন। তবে

১. পুরুষ লিঙ্গ। ২. স্ত্রী লিঙ্গ। ৩. মূত্রথলি। ৪. মেরুদণ্ডের ভেতরের মগজ বা সাদা রগ। ৫. পিত্ত। ৬. অণ্ডকোশ। ৭. চামড়ার নিচের টিউমারের মতো উঁচু গোশত। ৮. প্রবাহিত রক্ত। তবে এগুলোর ৮ম প্রকার প্রবাহিত রক্ত অকাট্য হারাম, বাকিগুলো মাকরুহে তাহরিমি। (আহসানুল ফাতাওয়া ৭/ ৪০৭)

প্রবাহিত রক্ত অকাট্য হারাম। এর দলিল হচ্ছে, আল্লাহ তাআলার বাণী, ‘আপনি বলে দিন, যা কিছু বিধান ওহির মাধ্যমে আমার কাছে পৌঁছেছে, তন্মধ্যে আমি কোন হারাম খাদ্য পাই না কোন ভক্ষণকারীর জন্যে, যা সে ভক্ষণ করে; কিন্তু মৃত অথবা প্রবাহিত রক্ত অথবা শুকরের মাংস এটা অপবিত্র। (সুরা আল আনআম ১৪৫)

বিশিষ্ট তাবিঈ কাতাদা রহ. বলেন, حرم من الدماء ما كان مسفوحا ، فأما لحم خالطه دم فلا بأس به হারাম করা হয়েছে প্রবাহিত রক্ত; সুতরাং যে রক্ত গোশতের সঙ্গে লেগে থাকে তাতে কোন অসুবিধা নেই। (তাফসির ইবন কাছীর ৩/৩৫৩)

বাদায়ে’-গ্রন্থে (৫/৬১) এসেছে, ‘হালাল প্রাণীর সাতটি অংশ খাওয়া নিষেধ। তাহল, প্রবাহিত রক্ত, পুরুষ লিঙ্গ, অণ্ডকোশ, স্ত্রী লিঙ্গ , চামড়ার নিচের টিউমারের মতো উঁচু গোশত, মূত্রথলি, পিত্ত। কেননা, আল্লাহ তাআলা বলেন, তাদের জন্য যাবতীয় পবিত্র বস্তু হালাল ঘোষণা করেন ও নিষিদ্ধ করেন নোংরা বস্তুসমূহ। (সুরা আল-আরাফ ১৫৭)

আর এই সাতটি বস্তু এমন যা মানুষ স্বভাবত ঘৃণা করে। আর মুজাহিদ রহ. থেকে বর্ণিত, ‘রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বকরির পুরুষ লিঙ্গ, অণ্ডকোশ, স্ত্রী লিঙ্গ , চামড়ার নিচের টিউমারের মতো উঁচু গোশত, পিত্ত, মূত্রথলি ও প্রবাহিত রক্ত অপছন্দ করেছেন।’

এখানে মাকরুহ (অপছন্দ) দ্বারা উদ্দেশ্য, মাক্রুহে তাহরিমি। কেননা, উক্ত ছয়টি বস্তুর উল্লেখ প্রবাহিত রক্তের সাথে করা হয়েছে। আর প্রবাহিত রক্ত হারাম। ইমাম আবু হানিফা রহ. থেকে বর্ণিত, রক্ত হারাম, ছয়টি বস্তু মাকরুহ। রক্ত হারাম; কেননা, তা অকাট্য দলিল দ্বারা প্রমাণিত। আর তাহল, আল্লাহ তাআলার বাণী- أَوْ دَمًا مَّسْفُوحًا অথবা প্রবাহিত রক্ত।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে