ক্ষমা পেলেন না, ৭০ লাখ রুপিতে ঋতুপর্ণার রক্ষা

প্রকাশিত: জুলাই ৩, ২০২৪; সময়: ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ |
খবর > বিনোদন
ক্ষমা পেলেন না, ৭০ লাখ রুপিতে ঋতুপর্ণার রক্ষা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : অপরাধ প্রমানিত হলে শাস্তি পেতেই হবে। যেমনটি পেয়েছেন ভারত-বাংলাদেশের বেশ জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এ নিয়ে ঢাকায় সিনেমা ও পশ্চিমবঙ্গের সিনেমা প্রেমিরা হতাশ। কারণ তাদের প্রিয় অভিনেত্রী এমন দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত হবেন তারা আশা করেননি।

জানা যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ক্ষমা চেয়েছেন। কিন্তু তার ক্ষমা মেলেনি। তাকে শাস্তি হিসেবে গুণতে হচ্ছে ৭০ লাখ ভারতীয় রুপি।

জানা যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে নিয়ে আলোচনা থামছে না। গত মে মাসে রেশন দুর্নীতি মামলায় টালিউড অভিনেত্রী ঋতুপর্ণাকে তলব করে ভারতীয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় অভিনেত্রী বলেছিলেন, রেশন দুর্নীতি কী, সে সম্পর্কে আমার কোনো ধারণা নেই। তবে মাস ঘুরতে না ঘুরতেই নাকি ৭০ লাখ রুপি ফেরত দিতে চেয়ে ইডি বরাবর আবেদন করছেন ঋতুপর্ণা। ইডির বরাত দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

এদিকে ১৯ জুন ইডির দপ্তরে যান ঋতুপর্ণা। প্রায় পাঁচ ঘণ্টার জিজ্ঞাসাবাদের পর সেখান থেকে বেরিয়ে সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, যে নথি ইডির কর্মকর্তারা চেয়েছিলেন, তা জমা দিয়েছি। আমি তাদের সহযোগিতা করেছি। তারাও আমাকে অনেক সহযোগিতা করেছেন। এই দুর্নীতির সঙ্গে আমার কোনো যোগ নেই। এর থেকে বেশি কিছু বলতে পারব না।

ইডি সূত্রে জানা গেছে, রেশন দুর্নীতিতে অভিযুক্ত পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলেন ঋতুপর্ণা। ঋতুপর্ণার মাধ্যমে রেশন দুর্নীতির প্রায় ৬০ লাখ রুপি টালিউডে বিনিয়োগ হয়েছে। সেই টাকা ঋতুপর্ণা ফিরিয়ে দিয়েছেন বলেও দাবি করেন। তার পরেও ইডিকে কেন ৭০ লাখ রুপি ফেরানোর আবেদন তিনি জানালেন তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

এর আগে রোজভ্যালি কেলেঙ্কারিতেও ঋতুপর্ণাকে তলব করেছিল ইডি। রোজভ্যালির সঙ্গে তার লেনদেন হয়েছে বলেও তখন অভিযোগ ওঠে। এবার রেশন দুর্নীতিতেও জড়াল তার নাম। এবার দেখা যাক, ইডি তার টাকা ফেরতের আবেদন মঞ্জুর করে, না কি অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের পথে হাঁটে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে