রিটার্ন জমার প্রমাণপত্র না দিলে গাড়ি নিবন্ধন-নবায়নে বাড়তি কর

প্রকাশিত: জুলাই ১০, ২০২৪; সময়: ১২:৫৪ অপরাহ্ণ |
রিটার্ন জমার প্রমাণপত্র না দিলে গাড়ি নিবন্ধন-নবায়নে বাড়তি কর

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : গাড়ি নিবন্ধন ও ফিটনেস নবায়নে আয়কর রিটার্ন জমার প্রমাণপত্র (পিএসআর) বাধ্যতামূলক। সেক্ষেত্রে গাড়ি নিবন্ধন বা নবায়নে গাড়ি ভেদে নির্দিষ্ট হারে অগ্রিম কর দিতে হয়। তবে গাড়ি নিবন্ধন বা নবায়নের সময় রিটার্ন জমার প্রমাণপত্র না দিলে বাড়তি অগ্রিম কর দেওয়ার বাধ্যবাধকতা যুক্ত করে পরিপত্র জারি করা হয়েছে।

গত ৮ জুলাই (সোমবার) ইস্যু করা বিশেষ আয়কর পরিপত্রে রিটার্ন জমার স্লিপ না থাকলে গাড়ি ভেদে বাড়তি ৮ হাজার থেকে লাখ টাকার বেশি কর দেওয়ার বাধ্যবাধকতার কথা বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, আয়কর আইন, ২০২৩ এবং অর্থ বিল, ২০২৪ অনুযায়ী এই বাড়তি কর দিতে হবে। শুধু অগ্রিম কর নয়, পরিবেশ সারচার্জ পরিশোধ না করলেও পরবর্তী বছর বাড়তি পরিবেশ সারচার্জ দিতে হবে।

মোটরযান নিবন্ধন ও ফিটনেস নবায়নে উৎসে কর, পরিবেশ সারচার্জ সংগ্রহ, পিএসআর বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) থেকে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে।

ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, বাণিজ্যিকভাবে পরিচালিত বাস, মিনিবাস, কোস্টার, প্রাইম মুভার, ট্রাক, লরি, ট্যাংক লরি, পিকআপ ভ্যান, হিউম্যান হলার, ম্যাক্সি বা অটোরিকশা ও ট্যাক্সিক্যাব থেকে উৎসে কর সংগ্রহ করা হবে।

আয়কর আইন, ২০২৩ এর ১৩৮ ধারা অনুযায়ী এসব মোটরযান নিবন্ধন বা ফিটনেস নবায়নে অগ্রিম কর আদায় করা হবে। একইসঙ্গে নিবন্ধন বা ফিটনেস নবায়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের আবেদনের সঙ্গে পিএসআর দাখিল করা হয়েছে কিনা-তা নিশ্চিত করতে হবে। পিএসআর না দিলে গাড়িভেদে অগ্রিম কর বেড়ে যাবে।

আইনের এই ধারা অনুযায়ী, ৫২ আসনের বেশি আসনের বাসের ক্ষেত্রে অগ্রিম কর ১৬ হাজার টাকা। তবে পিএসআর দিতে না পারলে অগ্রিম কর দিতে হবে ২৪ হাজার টাকা। অর্থাৎ বাড়তি ৮ হাজার টাকা অগ্রিম কর দিতে হবে।

একইভাবে ৫২ আসনের বেশি নয়, এমন বাসের ক্ষেত্রে অগ্রিম কর ১১ হাজার ৫০০ টাকা। পিএসআর না দিলে এই গাড়ির অগ্রিম কর দিতে হবে ১৭ হাজার ২৫০ টাকা।

শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাসের অগ্রিম কর ৩৭ হাজার ৫০০ টাকা। কিন্তু পিএসআর না দিলে এই গাড়ির অগ্রিম কর দিতে হবে ৫৬ হাজার ২৫০ টাকা।

ডাবল ডেকার বাস, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত মিনিবাস ও ৫ টনের অধিক ক্যাপাসিটির ট্রাক, লরি বা ট্যাংকের অগ্রিম কর ১৬ হাজার টাকা করে, পিএসআর না দিলে দিতে হবে ২৪ হাজার টাকা করে। শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত নয় এমন মিনিবাসে অগ্রিম কর ৬ হাজার ৫০০ টাকা। পিএসআর না দিলে দিতে হবে ৯ হাজার ৭৫০ টাকা।

প্রাইম মুভারের ক্ষেত্রে পিএসআর না দিলে ২৪ হাজার টাকার জায়গায় কর দিতে হবে ৩৬ হাজার টাকা। দেড় টনের বেশি নয় এমন ক্যাপাসিটির ট্রাক, লরি বা ট্যাংক, পিকআপ ভ্যান, হিউম্যান হলার, ম্যাক্সি বা অটোরিকশা, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত নয় এমন ট্যাক্সিক্যাবের ক্ষেত্রে ৪ হাজার টাকার জায়গায় কর দিতে হবে ৬ হাজার টাকা।

পিএসআর না দিলে দেড় টনের বেশি, তবে ৫ টনের বেশি নয়-এমন ক্যাপাসিটির ট্রাক, লরি বা ট্যাংক লরির ৯ হাজার ৫০০ টাকার জায়গায় কর দিতে হবে ১৪ হাজার ২৫০ টাকা।

পিএসআর না থাকলে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ট্যাক্সিক্যাব ১১ হাজার ৫০০ টাকার জায়গায় কর দিতে হবে ১৭ হাজার ২৫০ টাকা (তবে শর্ত পরিপালন করতে হবে)।

অপরদিকে, ব্যক্তিগত গাড়ির ক্ষেত্রেও পিএসআর জমা দিতে না পারলে বাড়তি অগ্রিম কর দিতে হবে। সেক্ষেত্রে এক গাড়ি ও একাধিক গাড়ির ক্ষেত্রে ভিন্ন অংকের বাড়তি অগ্রিম কর দিতে হবে।

আদেশে বলা হয়েছে, ১৫০০ সিসি বা ৭৫ কিলোওয়ার্টের ঊর্ধ্বে নয়, এমন একটি গাড়ির ক্ষেত্রে অগ্রিম কর ২৫ হাজার টাকা। তবে পিএসআর না দিলে ৩৭ হাজার ৫০০ টাকা দিতে হবে। একাধিক গাড়ি থাকলে প্রত্যেক গাড়িতে অগ্রিম কর ৩৭ হাজার ৫০০ টাকা হলেও পিএসআর না দিলে দিতে হবে ৫৬ হাজার ২৬০ টাকা।

একইভাবে ১৫০০ সিসি বা ৭৫ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে, তবে ২০০০ সিসি বা ১০০ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে নয়, এমন গাড়ির ক্ষেত্রে কর ৫০ হাজার টাকা। পিএসআর না দিলে দিতে হবে ৭৫ হাজার টাকা। একাধিক গাড়ি থাকলে প্রত্যেক গাড়ির জন্য ৭৫ হাজার টাকা। তবে পিএসআর না থাকলে দিতে হবে ১ লাখ ১২ হাজার ৫০০ টাকা।

২০০০ সিসি বা ১০০ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে, তবে ২৫০০ সিসি বা ১২৫ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে নয়, এমন গাড়ির ক্ষেত্রে কর ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা। পিএসআর না দিলে দিতে হবে ১ লাখ ৮৭ হাজার ৫০০ টাকা। একাধিক গাড়ির ক্ষেত্রে পিএসআর না দিলে দিতে হবে ২ লাখ ৮১ হাজার ২৫০ টাকা।

৩০০০ সিসি বা ১৫০ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে, তবে ৩৫০০ সিসি বা ১৭৫ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে নয়, এমন গাড়ির ক্ষেত্রে কর এক লাখ ৫০ হাজার টাকা। পিএসআর না দিলে দিতে হবে ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা। একাধিক গাড়ি থাকলে পিএসআর দিতে না পারলে দিতে হবে ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৫০০ টাকা।

৩৫০০ সিসি বা ১৭৫ কিলোওয়াটের ঊর্ধ্বে প্রতি গাড়ির ক্ষেত্রে কর দিতে হবে ২ লাখ টাকা। তবে পিএসআর দিতে না পারলে দিতে হবে ৩ লাখ টাকা। একাধিক গাড়ি থাকলে পিএসআর না দিলে কর দিতে হবে ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

মাইক্রোবাস প্রতিটির ক্ষেত্রে কর দিতে হবে ৩০ হাজার টাকা। পিএসআর দিতে না পারলে কর দিতে হবে ৪৫ হাজার টাকা। একাধিক গাড়ি থাকলে পিএসআর দিতে না পারলে কর দিতে হবে ৬৭ হাজার ৫০০ টাকা (তবে শর্ত পরিপালন করতে হবে)।

অপরদিকে, প্রতিবছর পরিবেশ সারচার্জ দিতে না পারলেও দিতে হবে বাড়তি কর। ১৫০০ সিসি বা ৭৫ কিলোওয়াট পর্যন্ত প্রতিটি গাড়ির জন্য পরিবেশ সারচার্জ দিতে হবে ২৫ হাজার টাকা। একইভাবে ১৫০০ সিসি বা ৭৫ কিলোওয়াটের বেশি, কিন্তু ২০০০ সিসি বা ১০০ কিলোওয়াটের বেশি নয়-এমন প্রতিটি গাড়ির জন্য ৫০ হাজার টাকা; ২০০০ সিসি বা ১০০ কিলোওয়াটের বেশি, কিন্তু ২৫০০ সিসি বা ১২৫ কিলোওয়াটের বেশি নয়-এমন প্রতিটি গাড়ির জন্য ৭৫ হাজার টাকা; ২৫০০ সিসি বা ১২৫ কিলোওয়াটের বেশি কিন্তু ৩০০০ সিসি বা ১৫০ কিলোওয়াটের বেশি নয়-এমন প্রতি গাড়িতে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা; ৩০০০ হাজার সিসি বা ১৫০ কিলোওয়াটের বেশি কিন্তু ৩৫০০ সিসি বা ১৭৫ কিলোওয়াটের বেশি নয়-এমন প্রতি গাড়িতে দুই লাখ টাকা; ৩৫০০ সিসি বা ১৭৫ কিলোওয়াটের বেশি এমন প্রতি গাড়িতে পরিবেশ সারচার্জ দিতে হবে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা। তবে সেক্ষেত্রে শর্ত পরিপালন করতে হবে।

পদ্মাটাইমস ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
topউপরে